ভারত-বাংলাদেশ পিঙ্ক টেস্টের উন্মাদনার মাঝেই ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি-২০ সিরিজ ও একদিনের সিরিজের জন্য ভারতীয় দল নির্বাচন করেছিলেন এমএসকে প্রসাদরা। টি-২০ সিরিজের ভারতীয় দল নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন হরভজন সিং। পিঙ্ক বল টেস্টের মাঝে এই নিয়ে কথা বলেননি ভাজ্জি। কিন্তু রবিবার ইডেনে পিঙ্ক বল টেস্ট শেষ হওয়ার পরই নিজের ক্ষোভ উগরে দিলেন ভারতীয় স্পিনার। কংগ্রেস নেতা শশী ঠারুরের একটি টুইটকে তুলে ধরে নিজের ক্ষোভের কথা জানালেন হরভজন সিং। 

 

 

আরও পড়ুন - টিকিট কেটেও দেখা হল না খেলা, টাকা ফেরত দিচ্ছে সিএবি

২১ নভেম্বর কংগ্রেস নেতা শশী ঠারুর টুইট করে লিখেছিলেন , ‘একটাও সুয়োগ না দিয়ে সঞ্জু স্যামসনকে দল থেকে বাদ দেওয়াটা মেনে নিতে পারছি না। শেষ তিনটি টি-২০ ম্যাচে ও শুধু মাঠে জল বয়ে নিয়ে গেছে। আর তারপর ওকে ছেঁটে ফেলা হল। ওরা কি সঞ্জুর ব্যাটিং পরীক্ষা করছে নাকি ও হার্ট পরীক্ষা হচ্ছে।’ এই টুইটের জবাব দিতে গিয়ে ভাজ্জি লেখেন, ‘ আমার মনে হয় ওরা সঞ্জুর হার্ট পরীক্ষা করছে। জাতীয় নির্বাচক কমিটি বদল করা উচিত। আরও যোগ্য মানুষেদের ওখানে বসাতে হবে। আশাকরি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।’

আরও পড়ুন - আবার বিতর্কে জড়ালেন সঞ্জয় মাঞ্জেকার, এবার তোপ দাগলেন হর্ষ ভোগলকে

একটা ম্যাচেও সুযোগ না দিয়ে সঞ্জু স্যামসনকে ছেঁটে ফেলার ঘটনাকে একেবারেই ভাল চোখে দেখেনি ভারতীয় ক্রিকেট মহল। এমএসকে প্রসাদ ও তাঁর নির্বাচক কমিটিকে একহাত নিয়েছে অনেকেই। সবারই মনে হচ্ছে ঋষভ যেখানে বারবার ব্যর্থ হচ্ছেন, সেখানে সঞ্জুকে একবার পরীক্ষা করতে সমস্যা কোথায়। আগামী বছর টি-২০ বিশ্বকাপ, তার আগে ঘরোয়া ক্রিকেটে ভাল পারফর্ম করা সব ক্রিকেটাকেই সুযোগ দিয়ে দেখে নেওয়া উচিত। সঞ্জু যদি সুযোগ পেয়ে ব্যর্থ হতেন তাহলে কোনও কথা ছিল না। কিন্তু যে সুযোগই পেল না তাকে কোন যুক্তিতে দল থেকে ছেঁটে ফেলা হল? প্রশ্ন উঠছে ভারতীয় ক্রিকেট মহলে। 

আরও পড়ুন - ইডেনে টেস্ট জয় ঐতিহাসিক মুহূর্ত, বাংলাদেশকে হারিয়ে বলছেন রোহিত