ধোনির অবসরের পর এখনও উত্তাল আসমুদ্র হিমাচল। সোশ্যাল মিডিয়া এখনও ট্রেন্ডিং ধোনির অবসর গ্রহণ। ধোনিকে নিয়ে স্মৃতিচারনে মেতেছেন বর্তমান থেকে প্রাক্তন ক্রিকেটাররা। ফেয়ারওয়েল ম্যাচ, ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে ধোনির নামে আসন থেকে শুরু করে ধোনিকে সম্মান জানানোর জন্যও চলছে নানা পরিকল্পনা। কিন্তু ধোনিকে সব থেকে বড় সম্মানটা ৯ বছর আগেই দিয়ে রেখেছেন ভারত তথা বিশ্ব ক্রিকেটের আরও এক কিংবদন্তী ব্যাটসম্যান সুনীল গাওস্কার। ধোনিকে দেওয়া গাওস্কারের এহেন সম্মান হয়তো আর কোনও ক্রিকেটার পেয়েছে কিনা সন্দেহ। কারন ধোনিকে সামনাসামনি গাওস্কার বলেছিলেন, মৃত্যুর আগে ওয়াংখেড়েতে ২০১১ বিশ্বকাপ জেতানো ধোনির সেই ছক্কাটা দেখ চির নিদ্রায় যেতে চান সানি।

আরও পড়ুনঃকার পরামর্শে ধোনিকে অধিনায়ক করেছিল বিসিসিআই, সামনে এল সেই তথ্য

ভারতীয় ক্রিকেটের আইকনিক শট হিসেবে বিবেচিত হয় নুয়ান কুলাশেকেরাকে মারা ধোনির ম্যাচ ফিনিশিং সেই ছয়টা। মৃত্যুর ঠিক আগে ধোনির মারা সেই শটটাই আরও একবার দেখতে চান ভারতের সর্বকালের সেরা ওপেনার সুনীল গাওস্কর। পুরোনো স্মৃতিচারন করতে গিয়ে গাওস্কার বলেন,'২০১১ বিশ্বকাপের পরেই আইপিএল হয়েছিল। সেই সময় ধোনির সঙ্গে সাক্ষাৎ হয়েছিল। ধোনির সঙ্গে দেখা হয়ে যাওয়ায় আমি ওকে বলি, দেখো এই পৃথিবী ছেড়ে চলে যাওয়ার আগে আমার হাতে যদি কয়েক মিনিট সময় থাকে, তা হলে তোমার মারা ওই শটটা আমি আরও এক বার দেখতে চাইবো। কারণ ওই শটটা আমার খুব প্রিয়। ওই শটটা দেখে আমি হাসতে হাসতে পৃথিবী ছাড়তে চাই।' এমন একজন কিংবদন্তীর মুখে এহেন সম্মান পেয়ে জবাবে আর কিছু সেদিন বলতে পারেননি ধোনি। শুধু তার মুখে ছিল হালকা হাসি।

আরও পড়ুনঃ'অবসরের পর সারা রাত ভারতীয় দলের জার্সি পরে বসেছিলেন ধোনি, চোখে ছিল জলও

আরও পড়ুনঃনরেন্দ্র মোদীর অনুরোধে অবসর ভাঙতে পারেন ধোনি, রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেসের বয়ানে নেট দুনিয়ায় ঝড়

মাঝে কেটে গিয়েছে ৯ বছর। সেদিনের তরুণ ধোনি আজ নিজেও অবসরপ্রাপ্ত। ১৫ অগাস্ট ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন ভারতের হয়ে দুটি বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ক। আইপিএল খেলে ফের দেশের জার্সিতে ফিরবেন ধোনি, তা নিয়ে যখন জল্পনা চলছিল ঠিক তখনই কোটি কোটি ভক্তকে কাঁদিয়ে ক্রিকেটকে বিদায় জানান মাহি। বিশ্বজয়ী অধিনায়কের অবসরের কথা ছড়িয়ে পড়তেই ক্রিকেটপাগল দেশ একটা ঘোরের মধ্যে চলে যায়। গাওস্করও হয়ে পড়েন আবেগপ্রবণ। নীল জার্সিতে আর দেখা না গেলেও, এবছর আইপিএলে দুরন্ত পারফর্ম করবেন ধোনি, সেই আশাই রাখছেন সানি।