প্রথম সেশনে তিন উইকেট হারিয়ে চাপে ছিল বাংলাদেশ। সেই চার আর কাটিয়ে উঠেত পারল না তারা। মহম্মদ সামির আগুনে বোলিংয়ের সামনে তাসের ঘরের মতে ভেঙে পড়ল বাংলাদেশের ব্যাটিং। ইন্দোরে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৫০ রানে গুটি গেয় বাংলাদেশের ব্যাটিং। টস জিতে প্রথমে ব্যাটিং করার সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরও মাত্র ৫৯ ওভারেই শেষ হয়ে গেল টাইগারদের ব্যাটিং। 

 

 

আরও পড়ুন - নকলে ছেয়ে গেছে কলকাতার ক্রীড়া সরঞ্জামের বাজার, কেস ফাইল করল ইডি

লাঞ্চ ব্রেকের আগে তিন ভারতীয় পেসার তিনটি উইকেট তুলে বাংলাদেশ ইনিংসে কাঁপুনি ধরিয়ে দিয়েছিলন। লাঞ্চের পরে এসে সেই কাঁপুনি কিছুটা কাটিয়ে তুলেছিলেন মুসফিকুর ও মমিনুল। কিন্তু অশ্বিনের স্পিনের ছোবলে কাত বাংলাদেশ। টেস্ট ক্রিকেটে ঘরের মাঠে ২৫০টি উইকেট নিলেন অশ্বিন। এই সংখ্যা আরও বাড়তে পারত, যদিনা রাহানে তিনটি ক্যাচ মিস করতেন। টি ব্রেকের আগে পরপর দুই বলে মুসফিকুর ও মেহদি হাসানের উইকেট তুলে নেন সামি। বাংলাদেশের রান তখন ১৪০। 

আরও পড়ুন - আগামী দিনে বিশ্বে রাজ করতে পারেন এই ভারতীয় কন্যা,সমীক্ষায় এমনই রিপোর্ট

টি-ব্রেক থেকে ফিরে এসে প্রথম বলেই লিটন দাসকে প্যাভেলিয়ানের রাস্তা দেখিয়ে দেন ইশান্ত। ১৪০ রানেই তিনটি উইকেট হারায় বাংলাদেশ। হ্যাটট্রিকের সুযোগ ছিল সামির সামনে, কিন্তু এবার হ্যাটট্রিক করতে পারেননি সামি। এরপর তাইজুল রান আউট। ইবাদতের উইকেট ওড়ালেন উমেশ। ১৫০ রানে শেষ বাংলাদেশ। ভআরতের হয়ে তিনটি উইকেট নিলেন সামি। দুটি করে উইকেট নিলেন উমেশ, ইশান্ত ও অশ্বিন। প্রথম টেস্ট শুরু হওয়ার আগে অনেকেই বলছিলেন এই ম্যাচ তিন দিনের বেশি টিকবে তো? টিম ইন্ডিয়ায়া কিন্তু সেই কথাই সত্যি প্রমাণ করার রাস্তায় হাঁটা শুরু করেছে। 

আরও পড়ুন - দিন রাতের টেস্ট খেলতে কেন বেছে নেওয়া হয়েছে গোলাপি বল, রহস্য ভেদ করল বৈজ্ঞানিকরা