দেশ জুড়ে ক্রমশ বাড়ছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে মৃতের সংখ্যাও। সংক্রমণ কমাতে চলছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ডাকে ২১ দিনের লকডাউন। এছাড়া পিএম কেয়ার্স ফান্ড ও রাজ্য সরকারের তহবিলেও অনুদান দিচ্ছেন সকলে। অনুদানের ক্ষেত্রে মুক্ত হস্তে দান করছেন ক্রিকেট, ফটবল থেকে অ্যাথলিট দেশের সকল ক্রীড়াবিদরা। আবার সরসারি অনুদান না দিয়ে কেউ কেউ বেছে নিচ্ছেন সেবার অন্যপথও।

আরও পড়ুনঃক্লার্কের সেরা ৭ ব্য়াটসম্যানের তালিকায় ভারতের সচিন ও কোহলি, বাদ স্টিভ স্মিথ

আরও পড়ুনঃমেসির ব্যক্তিগত জীবনের কিছু মূহুর্ত, যা বরাবর ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়

উপরের ছবিতে যাকে গরীব দুঃস্থ মানুষ ও পথকুকুরদের মধ্যে খাবার বিতরন করতে দেখা যাচ্ছে তিনি শেলডন জ্যাকসন। ২০১৯-২০ মরসুমের রঞ্জি ট্রফি চ্যাম্পিয়ন সৌরাষ্ট্র দলের অন্যতম প্লেয়ার শেলডন। আইপিএলে খেলছেন কলকাতা নাইট রাইডার্সের হয়ে। দেশের বিপদের গরীব মানুষদের কথা ভেবে ব্যক্তিগত উদ্যোগে এগিয়ে এসে সাহায্য করছেন শেলডন জ্যাকসন। ব্যাট হাতে সদ্য-সমাপ্ত রঞ্জি মরশুমে সৌরাষ্ট্রের হয়ে সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক  রাস্তায় নেমে খাবার বিলিয়ে দিচ্ছেন। গাড়ি নিয়ে  প্রত্যন্ত অঞ্চলে গিয়ে গরীব মানুষদের যতটা সম্ভব ক্ষুদা নিবারণের চেষ্টা করছেন শেলডবন। দুঃস্থদের মধ্যে খাবার বিলির সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন শেলডন জ্যাকসন। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে শেলডনের গাড়ির সামনে ক্ষুধার্ত মানুষের লম্বা লাইন। আর একাই তাদের মধ্যে খাবার বিলি করছেন শেলডন। ভিডিও’টির ক্যাপশন হিসেবে তিনি লিখেছেন, ‘পৃথিবীর আরোগ্য কামনা করি। প্রয়োজন যাদের তাঁদের মুখে খাবার তুলে দিন। আপনার এমন কাজের জন্য গর্ববোধ করুন।’

 

 

আরও পড়ুনঃনিজের সমস্ত ট্রফি বিক্রি করে সংগৃহিত অর্থ প্রধানমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে দান করলেন অর্জুন

শুধু মানুষই নয়, রাস্তার অভুক্ত পথ কুকুরদের মুখেও খাবার তুলে দিয়েছেন শেলডন। সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন চলতি মরসুমের রঞ্জি জয়ী দলের সদস্য। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে রাস্তার কুকুরদের মধ্যে অকাতরে বিস্কুট বিলিয়ে দিচ্ছেন শেলডন।  ক্যাপশন হিসেবে ভিডিওতে তিনি লিখেছেন, ‘এরাই আমার সম্প্রদায়।’ শেলডনের ভিডিও দু’টি দেখে তাঁকে কুর্নিশ জানিয়েছেন অনুরাগীরা।