রবিবার শুরু হচ্ছে বাংলাদেশের ভারত সফর, টি-২০ সিরিজের প্রথম ম্যাচে দেশের রাজধানীতে মুখোমুখি হতে চলেছে রোহিতের ভারত ও বাংলাদেশ। কিন্তু এই ম্যাচ আয়োজন নিয়ে একটাই সমস্যা। দিল্লির বায়ু দূষণ। দীপাবলির পরে দিল্লি আবার গ্যাস চেম্বারে পরিণত হয়েছে। এই অবস্থায় ম্যাচ আয়োজন কি সম্ভব এই প্রশ্নই উঠেছে বারবার। ম্যাচ অন্য ভেনুতে সরিয়ে নেওয়ার আবেদনও করেছে একাধিক এনজিও। এমন অবস্থায় ভারতীয় দলের অধিনায়াক রোহিত শর্মা বলছেন, দিল্লির বায়ু দূষণ নিয়ে ভআরতীয় দলের কোনও সমস্যা নেই। তাঁরা ম্যাচ খেলার জন্য তৈরি। এমনকি ২০১৭ সালে ভারত শ্রীলঙ্কা ম্যাচের প্রসঙ্গ টেনে এনে রোহিত বলেছেন, সেই দিনও তাঁদের কোনও সমস্যা হচ্ছিল না। বৃহস্পতিবারই দিল্লি পৌছে গেছেন রোহিত। 

আরও পড়ুন - আমি চা খাই না, কফি খাই, ফারুখ ইঞ্জিনিয়রকে পাল্টা দিলেন অনুষ্কা শর্মা

এদিকে বুধবার রাতে দিল্লি পৌছে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই অনুশীলনে নেমে পরেছে বাংলাদেশ দল। দূষণ নিয়ে তাঁদের কি অবস্থান সেটা জানার আগ্রহ ছিল সবার মধ্যে। বাংলাদেশের ব্যাটসম্যান লিটন দাসকে দেখা যায় মাক্স পরে অনুশীলন করছেন। এই দ্রুত ছড়িয়ে পরে ক্রিকেট দুনিয়ায়।

আরও পড়ুন - অনুষ্কার জন্য চা এনে দেওয়া কাজ নির্বাচকদের, বিস্ফোরণ ফারুখ ইঞ্জিনিয়ারের

 

 

অনুশীলন শেষে এই বিষয়ে তাঁকে প্রশ্ন করা হলে লিটন জানান, বায়ু দূষণের জন্য নয়, নিজের ব্যক্তিগত কিছু সমস্যার জন্য তিনি এই মুখোশ ব্যবহার করেছেন। গোটা বাংলাদেশ দল অনেকটা সময় ধরে মাঠে অনুশীলন করে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে সেই ভিডিও পোস্টও করা হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। 

আরও পড়ুন - গোলাপী বলে ব্যাটিং নিয়ে বিরাট-রোহিতদের টিপস দিলেন সচিন

 

 

এদিকে বিসিসিআই সভাপতি সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় আগেই জানিয়ে দিয়েছিলেন দিল্লি থেকে ম্যাচ সরিয়ে দেওয়ার কোনও প্রশ্ন নেই। বৃহস্পতিবারও তাঁকে এ নিয়ে প্রশ্ন করা হলে মহারাজ জানান, দীপাবলির পরে উত্তর ভারতের আবহাওয়ায় কিছুটা পরিবর্তন হয়। শীত আসার সময় আকাশে ধোঁয়ার প্রভাব থাকে। কিন্তু শেষ মুহুর্তে এসে ম্যাচ অন্য কোথাও সরিয়ে ফেলা সম্ভব নয়, তবে আগামী দিনে সূচি তৈরির ক্ষেত্রে বিসিসিআই এই বিষয় গুলির দিকে নজর রাখবে বলেই জানান তিনি।