সালটা ১৯৯২, ভারতীয় দল দক্ষিণ আফ্রিকায় একটি বন্ধুত্বপূর্ণ সিরিজ খেলতে গিয়েছিল ভারতীয় দল। দক্ষিণ আফ্রিকায় থাকা ভারতীয় বংশভূত মহারাজ পরিবারের সঙ্গে বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল সচিন আজহারদের। তারপর থেকে সচিনরা যতবার দক্ষিণ আফ্রিকায় গেছেন মহারাজ পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে দেখা করেছেন সচিনরা। এবার সেই পরিবারের ছেলেই ভারতের পথের কাঁটা হয়ে উঠতে পারেন। এমনটাই বলছেন দক্ষিণ আফ্রিকার আফ্রিকার অধিনায়ক ফাফ ডুপ্লেসি। 

আরও পড়ুন - মিডল অর্ডার থেকে ওপেনারের ভূমিকায় সেরা পাঁচ সফল ব্যাটসম্যান

ভারতীয় দল মাঠে নামার একদিন আগেই নিজেদের প্রথম একাদশ জানিয়ে দিয়েছে। ভারতীয় দল দেখে ক্রিকেট পন্ডিতরা ধরেই নিয়েছেন বিশাখাপত্তনমের প্রতিপক্ষকে স্পিনের ফাঁদে ফেলতে চলেছে টিম ইন্ডিয়া। আর তাই পাল্টা দিতে ভারতীয় বংশোদ্ভূত কেশব মহারাজকেই বাজি ধরছে দক্ষিণ আফ্রিকা শিবির। প্রোটিয়া অধিনায়ক ম্যাচের আগের দিন বলছেন, ‘অতীতের অভিজ্ঞতা থেকে আমরা দেখেছি এখানে বল স্পিন হয়। আমাদের দলে মহারাজ আছে, যে এই মুহূর্তে বিশ্বের সেরা স্পিনারদের একজন। তাই ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের সামনে ও বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে উঠবে।’

আরও পড়ুন - ওপেনার রোহিতকে পর্যাপ্ত সময় দেওয়া হবে, শেহওয়াগের কথা তুলে বলছেন অধিনায়ক কোহলি

অধিনায়ক তাঁর ওপর আস্থা রাখছেন সেই আস্থার মর্যাদা দিতে তৈরি কেশব মহারাজ। ২৫ টেস্ট ৯৪ উইকেট পাওয়া প্রোটিয়া স্পিনার প্রিপক্ষের দুই স্পিনারের থেকেই অনেক কিছু শিখে নেওয়ার চেষ্টা করছেন। জাদেজা-অশ্বিন জুটি ধারাবাহিকতা থেকে শিক্ষা নিয়ে নিজেকে ভারতের মাটিতে মেলে ধরতে চান এই ভারতীয় বংশভূত ক্রিকেটার। পাশাপাশি মনে করছেন স্পেনের পাশাপাশি পেস বোলারদের রিভার্স সুইং এই সিরিজের গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাক্টর হয়ে উঠবে। 

আরও পড়ুন - প্রায় ২ বছর পর প্রথম দলে ফিরলেন ঋদ্ধিমান, দলে অশ্বিনও