চারিদিকে করোনা আতঙ্কের মধ্যেও ভারতীয় ক্রিকেটের আরও এক কালো অধ্যায়। দেশবাসী যখন করোনা মহমারীর সঙ্গে লড়াই করার প্রস্তুতি নিচ্ছে তখনই এই খবরটি প্রকাশ্যে আসে। যৌন হেনস্থার অভিযো উঠল প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্লেয়ার অতুল বেদাদের বিরুদ্ধে। বর্তমানে বরোদা মহিলা দলের দলের কোচ ছিলেন তিনি। দলেই কয়েকজন সিনিয়র মহিলা ক্রিকেটার বেদাদের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ করেন।  গত মাসে সিনিয়র মহিলাদের একদিনের প্রতিযোগিতা চলাকালীন বেদাদে দুর্ব্যবহার করেছিলেন বলে অভিযোগ। তার পরিপ্রেক্ষিতেই তদন্ত না-হওয়া পর্যন্ত কোচের পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হল তাঁকে।

আরও পড়ুনঃকঠিন পরিস্থিতিতে দেশবাসীকে সচেতনতার বার্তা ইরফান পাঠানের

আরও পড়ুনঃএকই হোটেলে ছিলেন কণিকা এবং দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেট দল, খতিয়ে দেখা হচ্ছে সিসিটিভি ফুটেজ

বরোদা ক্রিকেট সংস্থার সচিব অজিত লেলে সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছেন, “তদন্তকারী কমিটির কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত বেদাদেকে নির্বাসিত করা হয়েছে। সংস্থার বাইরের একজন নিরপেক্ষ সদস্য থাকবে এই তদন্ত কমিটিতে। যৌন হেনস্থার অভিযোগ পেলে এটাই করা হয় সাধারণত।” তবে করোনাভাইরাস নিয়ে উদ্ভূত পরিস্থিতির জেরে এই কমিটি কখন গড়া হবে, তা নিশ্চিত নয়। প্রথমসারির এক গ্লোবাল ক্রিকেটিং সাইটের রিপোর্ট অনুযায়ী, বেদাদের বিরুদ্ধে নির্দিষ্ট কোনও অভিযোগ নেই। তবে একজন মহিলা দলের কোচ হিসেবে তাঁর স্বভাব, মন্তব্যের বিরোধী হয়ে উঠেছিলেন দলের ক্রিকেটাররা। বেদাদের রাগের বহিঃপ্রকাশ, দলের ক্রিকেটারদের বডি শেমিং, মহিলাদের উদ্দেশ্যে এক্তিয়ার বহির্ভূত শব্দপ্রয়োগ। এমনই নানা অভিযোগ ছিল বেদাদেকে ঘিরে। যা দলের মহিলা ক্রিকেটারদের মানসিক ভাবে বিপর্যস্ত করে তুলছিল। তাই সবদিক বিচার করে বরোদার হয়ে ৬৪ ম্যাচ খেলা প্রাক্তন ক্রিকেটারকে তাদের মহিলা কোচের পদ থেকে সাসপেন্ড করল বিসিএ।

 

;

 

১৯৯৪ সালে বেদাদে জাতীয় দলের হয়ে ১৩ ম্যাচে ২২.৫৭ গড়ে ১৫৮ রান করেছিলেন। হার্ডহিটার বলে পরিচিত বেদাদের আন্তর্জাতিক ক্রিকেট কেরিয়ার স্থায়ী হয়নি বেশিদিন। তিনি এক সময় বরোদার পুরুষ দলের কোচ ছিলেন। গত বছর তিনি মহিলা দলের দায়িত্ব নিয়েছিলেন। তবে বেদাদের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার খবর প্রকাশ্যে আসার পর নিজের বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন তিনি। একইসঙ্গে প্রয়োজনে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ারও কথা বলেছেন অতুল বেদাদে।

আরও পড়ুনঃ'কালোবাজারিরা দেশের আসল করোনা ভাইরাস', সোশাল মিডিয়ায় সরব রুবেল হোসেন