বাংলাদেশ ক্রিকেটকে ক্রমশ গ্রাস করছে করোনা ভাইরাস। গতকালই মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন বাংলাদেশের প্রাক্তন অধিনায়ক মাশরফি মোরতাজা। একইসঙ্গে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বাংলাদেশের বর্তমান একদিনের দলের অধিনায়ক তামিম ইকবালের দাদা তথা প্রাক্তন বাংলাদেশি ওপেনার নাফিস ইকবাল। কিন্তু আরও বড়সড় বিপদ যে তামিম ইকবাল ও তার পরিবারের জন্য অপেক্ষা করে রয়েছে তা হয়তো টেরও পাননি  বেঙ্গল টাইগার্সদের অধিনায়ক। কারণ জানা যাচ্ছে শুধু নাফিস ইকবাল নয়, তামিমের বাড়িতে মোট চারজন কোভিড ১৯ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। 

আরও পড়ুনঃচিনের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগড়ে দিলেন হরভজন,নিলেন চিনা পণ্যের বিজ্ঞাপন না করার সিদ্ধান্ত

তামিম ইকবালের পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, তামিমের মা সহ পরিবারের আরও তিনজন ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। বাংলাদেশের বেশ কয়েকটি সংবাদ মাধ্যম জানাচ্ছে, নাফিসের দুই সন্তান ও বাড়ির পরিচারিকা করোনা আক্রান্ত হয়েছে। তবে কারা কারা এখনও আক্রান্ত হয়েছেন এ সম্পর্কে নিশ্চিত এখনও কোনও খবর প্রকাশ্যে আসেনি। একইসঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি গুজবও ছড়িয়ে পড়ে যে তামিম ইকবালও করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তবে পরিবারের তরফে নিশ্চিত করা হয়েছে এটি সম্পূর্ণ ভুঁয়ো খবর। সম্পূর্ণ সুস্থ ও স্বাভাবিক রয়েছেন তামিম ইকবাল। 

আরও পড়ুনঃক্রিকেটে ম্যাচ ফিক্সিংয়ের আঁতুরঘর হয়ে উঠছে ভারত,দাবি আইসিসির

আরও পড়ুনঃনেতা সৌরভের মধ্যে ক্লাইভ লয়েডকে দেখতে পেতেন শ্রীকান্ত

বর্তমানে তামিম ইকবালের পরিবারের আক্রান্ত সব সদস্যরাই বাড়িতে থেকেই মারণ ভাইরাসের চিকিৎসা করাচ্ছে। পরিবারের সদস্যদের জ্বর ছাড়া অন্য কোনও উপসর্গ নেই বলেও জানা গিয়েছে। বর্তমানে সকলেই স্থিতিশীল থাকায় বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা করানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তবে পরিবারের একের পর এক সদস্যের মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার খবরে চিন্তিত রয়েছে তামিম ইকবাল। এই খবর ছড়িয়ে পড়ার পর থেকেই উদ্বেগ আরও বেড়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের। তামিমকে সচেতন থাকার পরামর্শের পাশাপাশি পরিবারের সদস্যদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করা হয়েছে বিসিবির তরফ থেকে।