চলতি বছরের ৮ নভেম্বর হওয়ার কথা ছিল আইপিএল ২০২০ এর ফাইনাল। কিন্তু মনে করা হচ্ছে, বিসিসিআই ফাইনাল ম্যাচের তারিখ বিলম্বিত হতে পারে। এখনও অবধি পাওয়া খবর অনুযায়ী ১০ নভেম্বর হতে পারে আইপিএলের ফাইনাল। আইপিএল খেলেই দুবাই থেকে সরাসরি অস্ট্রেলিয়া সফরের জন্য উড়ে যাবেন ভারতীয় ক্রিকেটাররা। ২ অগাস্ট আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের মিটিং বসবে। সেখানেই এই ব্যাপারে পাকাপাকি কথা হয়ে যাবে। প্রসঙ্গত, আইপিএল ২০২০ শুরু হবে ১৯ সেপ্টেম্বর। 

আরও পড়ুনঃইস্টবেঙ্গলকে আইএসএলে খেলানোর জন্য ফেডারেশনের কাছে দরখাস্ত এফপিএআই-এর

সাধারণত অন্যান্যবার একটা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য ক্রিকেটারদের পরিবার আসে আইপিএলে। কিন্তু এবারের পরিস্থিতি যেহেতু সম্পূর্ণ ভিন্ন, কী হবে চূড়ান্ত অনিশ্চিত। শোনা যাচ্ছে আইপিএল ফ্রাঞ্চাইজিরা বোর্ডের কাছে একটি আবেদনপত্র জমা করতে পারে। তাতে ক্রিকেটারদের পরিবারদের তাদের সাথে থাকার জন্য অনুমতি চাওয়া হবে। কারণ হিসেবে বলা হচ্ছে এইবারের আইপিএলের পরিবেশ পুরোটাই আলাদা। এতদিন বাড়িতে কাটানোর পর হঠাৎ করেই প্রায় তিনমাস ক্রিকেটারদের বাড়ি থেকে দূরে কাটাতে হবে। এত দীর্ঘ সময় একা থেকে যাতে ক্রিকেটাররা ডিপ্রেশনের কবলে না পড়েন সেইজন্যই এই সিদ্ধান্ত ফ্রাঞ্চাইজিদের। বাকিটা নির্ভর করবে বিসিসিআইয়ের ওপর। 

আরও পড়ুনঃ২৪টি গোল্ড মেডেল জয়ী প্লেয়ার বর্তমানে দিনমজুর,সাহায্যের হাত বাড়ালেন ক্রীড়ামন্ত্রী

এই বছরে ৫১ দিনের টুর্নামেন্ট হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু এখন মনে হচ্ছে সেটা হতে পারে ৫৩ দিনের। ফাইনালের আগে অনেক ভারতীয় ক্রিকেটারের আইপিএল অভিযান শেষ হয়ে যাবেন। তবুও তাঁরা দুবাই ছেড়ে বেরোতে পারবেন না। তাঁদের দুবাইতেই থাকতে হবে কোয়ারেন্টাইনে। বিসিসিআই প্রয়োজন বোধ করলে দুবাইতে পরবর্তী সিরিজের জন্য প্রস্তুতি শিবির আয়োজনের ব্যবস্থা করতে পারে। বছরের শেষে হতে চলা অস্ট্রেলিয়া সফরের আগে ক্রিকেটাররা সেখানে প্র্যাকটিস সারবেন। 

আরও পড়ুনঃভারতের প্রাক্তন ক্রিকেট অধিনায়ক,অর্থাভাবে আজ রাস্তার ধারে বসে পাথর ভাঙছেন

 সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে আবহাওয়া ভারতের থেকে অনেকটাই অন্যরকম। সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময়ও ভারতের চেয়ে অনেক বেশি গরম থাকবে ওদেশে। অক্টোবরের মাঝামাঝি সময় থেকে আবহাওয়া পরিবর্তিত হতে শুরু করে। সেই ক্ষেত্রে প্রথমদিকে প্রত্যেকদিন একটি করে ম্যাচ আয়োজিত হলেও পরবর্তী সময়ে দিনে দুটি করে ম্যাচ আয়োজন হতে পারে। তবে আইপিএলের ফাইনাল পিছিয়ে যাওয়ায় অস্ট্রেলিয়া সফরের জন্য ক্রিকেটাররা সংযুক্ত আরব আমিরশাহি থেকেই উড়ে যাবেন বিরাটরা। অস্ট্রেলিয়া সফর লম্বা। তাই আইপিএলের জন্য দুবাইতে যাওয়ার পর ক্রিকেটাররা বাড়ি থেকে দূরে থাকবেন অনেকদিন। চলতি বছরে আর হয়তো বেশিরভাগ ক্রিকেটারই বাড়ি ফিরতে পারবেন না। কারণ আইপিএল খেলেই ভারতীয় ক্রিকেটাররা চলে যাবেন অস্ট্রেলিয়া।