যত দিন এগোচ্ছে দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা ক্রমেই বেড়ে চলেছে। যা ক্রমশ উদ্বেগের বিষয় হয়ে দাঁড়াচ্ছে কেন্দ্র তথা রাজ্য প্রশাসনের কাছে। ভারতীয় ক্রীড়া ক্ষেত্রেও নিজের মারণ থাবা ক্রমশ বিস্তার করেই চলেছে মহামারী ভাইরাস।ভারতের দ্বিতীয় বক্সার হিসেবে কোভিড ১৯-এ আক্রান্ত হলেন পাঁচবারের এশিয়ান চ্যাম্পিয়নশিপে সোনাজয়ী সরিতাদেবী। তারকা বক্সারের করোনা আক্রান্তের খবর প্রকাশ্যে আসতেই উদ্বেগ বেড়েছে ভারতীয় বক্সিং তথা ক্রীড়া মহলে।

আরও পড়ুনঃচিনের ভিভোকে সরিয়ে ঘোষণা আইপিএলের নতুন টাইটেল স্পনসররের নাম, হাফ ছাড়ল সৌরভের বোর্ড

বেশ কিছু দিন ধরেই জ্বরে ভুগছিলেন সরিতা দেবি। প্রাথমিক চিকিৎসা করালেও কমছিল না জ্বর। সঙ্গে ছিল গায়ে ব্যাথাও। তাই আর কাল বিলম্ব করেননি ভারতীয় বক্সার। তড়িঘড়ি করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা করান সরিতা দেবী।  রিপোর্টে জানা যায়, মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত তিনি। সংবাদ মাধ্যমের কাছে নিজেই করোনা আক্রান্ত হওয়ার খবর জানান সরিত দেবী। তবে তিনি একা নন, ভাইরাসের হদিশ মেলে তাঁর স্বামীর শরীরেও। যদিও তাঁদের ছেলের রিপোর্ট নেগেটিভই আসে। শোনা যাচ্ছে, স্বামী-স্ত্রী দু’জনই ইম্ফলের একটি কোভিড কেয়ার সেন্টারে থাকবেন। তবে এখনও পর্যন্ত দুজনের শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল রয়েছে। 

আরও পড়ুনঃআন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এক যুগ পার,সেদিনের তরুণ বিরাট আজ কিং কোহলি

আরও পড়ুনঃধোনি আবেগের কাছে হার মানল কাঁটাতারও, ক্রিকেট মাঠকে বিদায় জানালেন 'বসির চাচা'

সরিতা দেবী প্রথম নয়, এর আগে ভারতীয় বক্সারদের মধ্যে প্রথম করোনা আক্রান্ত হন কিংবদন্তি ভারতীয় বক্সার ডিঙ্কো সিং। তবে চিকিৎসার পর আপাতত সুস্থ রয়ছেন তিনি। তবে সরিতা দেবী ও তার স্বামী করোনা আক্রান্ত হওয়ায় উদ্বেগে রয়েছে তার পরিবারের অন্যান্য সদস্যরা। আপাতত  চিকিৎসকরা দেখভাল করছেন ভারতীয় তারকা বক্সারকে। শেষ কয়েক দিনে তার সংস্পর্ষে কারা কারা এসেছিলেন সেই বিষয়েও জানার চেষ্টা চালানো হচ্ছে। সরিতা দেবী ও তার স্বামীর দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন সকলে।