আইপিএলর শুরুর দিন দেখে একাধিক আইপিএল ফ্রাঞ্চাইজির কপালে চিন্তার ভাঁজ। আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল চাইছে মার্চের ২৮ তারিখ থেকে আইপিএল ১৩ শুরু করে দিতে। কিন্তু এই দিনের কথা শুনেই আতকে উঠছেন একাধিক ফ্রাঞ্চাইজির কর্তারা। কারণ ক্রিকেট বিশ্বে তখন দুটি সিরিজ চলবে। একদিকে অস্ট্রেলিয়া নিউজিল্যান্ড সিরিজ। অন্যদিকে শ্রীলঙ্কা-ইংল্যান্ড সিরিজ। এই চার দলের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার আইপিএলের সব কটি দলেই কার্যত আছে। তাদের ছাড়া আইপিএল অভিযানে নামতে চাইছে না একাধিক দল। এমনকি চারটি দল ইতিমধ্যেই আইপিএল কিছুটা পিছিয়ে দেওয়ার আর্জি জানিয়েছেন। 

আরও পড়ুন - রবিবার কটকে সিরিজ ফয়সালার ম্যাচ, বিশাখাপত্তনমের দাপটেই বাজিমাত করতে চায় ভারত

আগামী বছরের ক্রিকেটর সূচির দিকে তাকালে যা দেখা যাচ্ছে তাতে, অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের মধ্যে টি-২০ সিরিজের শেষ ম্যাচ হবে ২৯ মার্চ। আর শ্রীলঙ্কা ও ইংল্যান্ড টেস্ট সিরিজ শেষ হওয়ার কথা ৩১ মার্চ। তাই এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহের আগে এই চার দলের ক্রিকেটারদের পাওয়ার সম্ভাবনা নেই। তাই আইপিএলের শুরু থেকেই একাধিক বড় ক্রিকেটারকে ছাড়াই শুরু করতে হবে। যা নিয়ে রাজি নয় একাধিক ফ্রাঞ্চাইজি। তাই এপ্রিল মাসের ১ তারিখ থেকে আইপিএল শুরু করার দাবি জানাচ্ছে একাধিক দল। বৃহস্পতিবার কলকাতা আইপিএলের ক্রিকেটার নিলামের আগেই এই নিয়ে আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সদস্যদের কাছে দরবার করেছেন ফ্রাঞ্চাইজি কর্তারা। 

আরও পড়ুন - মানসিক চাপ থেকে মুক্তি চাই, ক্রিকেট থেকে অনির্দিষ্ট কালের ছুটিতে বিড়লা পুত্র আর্যমান

সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া ইন্টারভিউতে একাধিক দলের কর্তারা জানিয়েছেন, গত মরসুমে বিশ্বকাপের জন্য একাধিক ক্রিকেটার টুর্নামেন্টের মাঝপথেই যে যার দেশেরে হয়ে শিবিরে যোগ দিতে চলে গিয়েছিলেন। গত মরসুমে আইপিএলে এক একদিন একটি করেই ম্যাচ হয়েছে। এবার সবটাই নির্ভর করছে আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলির ওপর। এপ্রিলের এক তারিখ থেকে খেলা শুরু করলে আবার এক দিনে দুটি করে ম্যাচ আয়োজন করতে হবে। সেটা নিয়েই ভাবছে গভর্নিং কাউন্সিল। এখনও পর্যন্ত যা খবর তাতে আইপিএল শুরু হওয়ার কথা মার্চের ২৮ তারিখ। আর ফাইনাল ম্যাচ হওয়ার কথা মেয়ে মাসের ২৪ তারিখ। এখন দেখার দলগুলির দাবি শুনে ব্রিজেশ প্যাটেলরা কি সিদ্ধান্ত নেন। 

আরও পড়ুন - এনসিএ’কে সঠিক পথে নিয়ে আসার চ্যালেঞ্জ সৌরভ-রাহুলদের সামনে