দেশকে দুটি বিশ্বকাপ দিয়েছেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। উইকেট কিপার ব্যাটসম্যান হয়েও তার ব্যাটিং গড় একদিনের ক্রিকেটে ৫০। রান তাড়া করার ক্ষেত্রেও ধোনি বিশ্বের অন্যতম। ধোনির ক্রিকেটীয় বুদ্ধি তো পৃথিবীতে কারও আছে কিনা তা নিয়ে রয়েছে সন্দেহ। কোহলির ক্ষেত্রে আগ্রাসন ও রানের খিদেই তাকে বিরাট করে তুলেছে। রান মেশিন তকমা পেয়ছেন। অধিনায়ক হিসেবেও অর্জন করেছেন একের পর এক এক সাফল্য। অপরদিকে রোহিত শর্মা, একদিনের ক্রিকেটে একমাত্র ব্যাটসম্যান যার তিনটি ডবল সেঞ্চুরি। এক বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ ৫টি সেঞ্চুরি করার অনন্য নজির রয়েছে হিটম্যানের। আইপিএলের ইতিহাসে অন্যতম সেরা অধিনায়ক। ভাবছেন এই কথাগুলি কেনও বলছি। কারণ সম্প্রতি ভারতীয় অলরাউন্ডার হার্দিক পাণ্ডিয়ার কাছে এক সাক্ষাৎকারে যোগ দেন  বরোদা ক্রিকেট সংস্থার অনূর্ধ্ব ১৯ ক্রিকেটারদের সঙ্গে। সেখানে জানতে চাওয়া হয়েছিল বিরাট কোহালি, মহেন্দ্র সিংহ ধোনি এবং রোহিত শর্মা এত সফল কেন?  জবাবে হার্দিক প্রথমে এক কথায় উত্তর দিয়ে বলেন,'এরা কোনও দিনও দুই নম্বর হতেই শেখেনি তাই'।

আরও পড়ুনঃফের এক বিরল প্রতিভার খোঁজ সেওয়াগের,৫ বছরের বাচ্চা চালাচ্ছে জেসিবি, ভাইরাল ভিডিও

আরও পড়ুনঃপাকিস্তান অধিনায়ক বাবর আজমকে 'খুনের' হুমকি দিলেন সানিয়া মির্জা

এছাড়া এই প্রসঙ্গে বিস্তারিত বলতে গিয়ে হার্দিক পান্ডিয়া বলেন,'দিন দুয়েক আগেই বিরাটের সঙ্গে আমার কথা হচ্ছিল। বিরাটকে প্রশ্ন করি, তোমার সাফল্যের রহস্য কী?'পাণ্ড্যর প্রশ্নের জবাবে ভারত অধিনায়ক বলেন,'তোমার মানসিকতা ঠিকই আছে। তবে তোমাকে একটা ব্যাপারে নজর দিতে হবে। এক নম্বর হওয়ার খিদে থাকতে হবে তোমার মধ্যে। তবে সেটা করতে গিয়ে অন্যায় ভাবে অন্য কাউকে সরালে চলবে না। কঠিন পরিশ্রম, নিজের প্রতিভার জোরেই এক নম্বর স্থান দখল করতে হবে। এটাই হওয়া উচিত।' কোহালির এ হেন মন্তব্যেই পাণ্ড্যর কাছে পরিষ্কার হয়ে যায়, ভারত অধিনায়ক কেন এত সফল তাঁর কেরিয়ারে। পাণ্ড্য বলছেন,'বিরাট, রোহিত শর্মা, এমএস ধোনির মতো ক্রিকেটার দু’নম্বর হওয়ার জন্য খেলে না। ওরা দু’নম্বর হতেই চায় না। ওরা যদি প্রথম স্থান হারায়ও, তা হলেও তা নিয়ে বেশি ভাবনাচিন্তা করে না।' এছাড়া উঠতি প্রতিভার দের উদ্দেশ্যে হার্দিক নিজের তরফ থেকে বলেছেন, সেরা হওয়ার জন্য চেষ্টা করে যেতে হবে। সে তুমি বোলার হও বা ব্যাটসম্যান। জীবনে তোমার প্রতিদ্বন্দ্বী তুমিই, এ ভাবেই দেখতে হবে। কঠোর পরিশ্রম আর শুধু পরিশ্রমের জোরেই তুমি সেরা হতে পারবে। যেটা ঙোনি, কোহলি, রোহিত সহ ভারতীয় ক্রিকেটাররা সবসময় করেন।'

আরও পড়ুনঃপরিবারে একের পর এক করোনার থাবা,রাতের ঘুম কেড়েছে সৌরভের