ব্যাটিং সংক্রান্ত পরামর্শ  পছন্দ না হওয়ায় তার গলায় ছুরি ধরেছিলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন তারকা ব্যাটসম্যান ইউনিস খান। পাক দলের প্রাক্তন ব্যাটিং কোচ জিম্বাবোয়ে তারকা গ্র্যান্ট ফ্লাওয়ার। যেই অভিযোগ সামনে আসার পরই তোলপার হয়েছিল ক্রিকেট বিশ্ব। একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে গ্র্যান্ট ফ্লাওয়ার জানিয়েছিলেন,'২০১৬ সালে  পাকিস্তানের অস্ট্রেলিয়া সফরের সময়  ব্রিসবেন টেস্টের প্রথম ইনিংসে শূন্য রানে আউট হয়ে যান ইউনিস খান। পর দিন সকালে প্রাতঃরাশের সময় আমি ওকে ওকে কিছু পরামর্শ দিতে যাই। আমি ভাল মতই জানতাম ওর কেরিয়া রেকর্ড দুর্দান্ত। পরিসংখ্যানের হিসেবে আমার সঙ্গে তাঁর কোনো তুলনাই চলে না। পাকিস্তানের ইতিহাসে টেস্টে সবচেয়ে বেশি রান তাঁর। তবে ও আমার পরামর্শটি সদয়ভাবে গ্রহণ করেনি৷ ও আমার গলায় কাছে একটি ছুরি ধরেছিল, মিকি আর্থার পাশেই বসেছিলেন৷ সে পর্যন্ত মিকি’র হস্তক্ষেপে ও শান্ত হয়েছিল।' যদিও গ্র্যান্ট ফ্লাওয়ারের এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড। 

আরও পড়ুনঃওপেনিংয়ের সময় কেনও প্রথম বল খেলতেন না সচিন,রহস্য ফাঁস করলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়

আরও পড়ুনঃবর্তমান দল থেকে কাকে ২০০৩ বিশ্বকাপ দলে নিতেন,মায়াঙ্কের প্রশ্নের উত্তরে সৌরভ বললেন

এতদূর পর্যন্ত তাও সব ঠিক ছিল। কিন্তু এবার এই ঘটনায় প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক মহম্মদ আজহারউদ্দিনের নাম জড়িয়ে দিলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন অধিনায়ক রশিদ লতিফ। রশিদের দাবি, ইউনিসের অভিযোগের কারণ মহম্মদ আজহারউদ্দিন হতে পারে। নিজের ইউটিউব শো ‘কট বিহাইন্ড’-এ লতিফ বলেন, ‘আমরা জানি না ড্রেসিং রুমের ভিতরে কী হয়েছিল। তবে আজহারউদ্দিন এর পিছনে একটা কারণ হতে পারে। ২০১৬-য় ইউনিস ওভালে ডাবল সেঞ্চুরি করেছিল। তখন ও ব্যাটিং কোচ ফ্লাওয়ারের নাম নেয়নি। ও বলেছিল যে, আমি সমস্যায় ছিলাম এবং আজহারউদ্দিন সাহায্য করেছে।’ লতিফ আরও বলেন, ‘একজন ব্যাটসম্যান ব্যাটিং কোচকে ছেড়ে অন্য কাউকে কৃতিত্ব দিচ্ছে, এটা একটা বড় বিষয়। পাকিস্তানের ব্যাটিং কোচ হিসেবে ফ্লাওয়ারের অবশ্যই অবদান রয়েছে। তবে আমার মনে হয় ইউনিসের আজহারউদ্দিনকে কৃতিত্ব দেওয়ার বিষয়টা ফ্লাওয়ারের মাথায় ছিল। তাই হয়ত ও এভাবে ইউনিসকে পালটা দিচ্ছে।’ যদিও এই বিষয়ে এখনও কোনও মুখ খোলেননি মহম্মজ আজহারউদ্দিন। তবে প্রাক্তন ভারত অধিনায়কের নাম জড়িয়ে দিয়ে ছুরি কাণ্ডকে রাশিদ লতিফ নয়া মাত্রা দিলেন বলেই মনে করছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা।

আরও পড়ুনঃ'এত হারিয়েছি যে ভারতীয় ক্রিকেটাররা একসময় দয়া ভিক্ষা চাইত',সুস্থ হয়েই ভারতের বিরুদ্ধে তোপ দাগা শুরু আফ্রিদির