মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়াম। ২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনাল। জয়ের দোরগোরায় ভারতীয় দল। ব্যাট হাতে ভারতীয় দলের অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোননি। নুয়ান কুলাশেকারাকে বল নিজস্ব স্টাইলে বিশাল ছক্কা হাকালেন ধোনি। বল উড়ে গিয়ে ওয়াখেড়ের গ্যালারিতে পড়তেই স্বপ্নপূরণ। ২৮ বছর পর ফের বিশ্বসেরা ভারত। নিঃসন্দেহে ধোনির সেই ছক্কা ভারতীয় ক্রিকেটের অন্যতম জনপ্রিয় শট সেবিষয়ে সন্দেহ নেই কারও। ধোনির অবসরের পর চাকে সম্মান জানাতে অভিনব পদক্ষেপ নিতে চলেছে মুম্বই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন।

আরও পড়ুনঃবিসিসিআইয়ের বিরুদ্ধে মামলা, বিদেশ নয় দেশের মাটিতে চাই আইপিএল

১৫ অগাস্ট সন্ধায় ১৩০ কোটি দেশবাসীর হৃদয় ভেঙে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানান এমএস ধোনি। তারপর থেকেই নানা উপায় ভাবা হচ্ছে ভারতের হয়ে দুটি বিশ্বকাপ জয়ী অধিনায়ককে সম্মান জানাতে। মুম্বাই ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশনের তরফ থেকে ভাবা হয়েছে,২০১১ বিশ্বকাপ ফাইনালের শেষ ছয়টা যে চেয়ারে গিয়ে উড়ে পড়েছিল, সেই চেয়ারটি ধোনির নামে উৎসর্গ করার বিষয়ে। মুম্বই ক্রিকেট সংস্থার অ্যাপেক্স কাউন্সিলের সদস্য অজিঙ্কা নায়েক এমসিএকে এমন দাবি জানিয়েই চিঠি দিয়েছেন। ভারতীয় ক্রিকেটে ধোনির অবদানের কথা মাথায় রেখে ওই চেয়ারটিকে তাঁর নামে যাতে নামাঙ্কিত করা হয়, সেই দাবি জানান নায়েক। এমসিএর পরবর্তী সভায় এই নিয়ে আলোচনা হবে। 

আরও পড়ুনঃচিনের ভিভোকে সরিয়ে ঘোষণা আইপিএলের নতুন টাইটেল স্পনসররের নাম, হাফ ছাড়ল সৌরভের বোর্ড

আরও পড়ুনঃরাজীব গান্ধি খেলরত্ন পাচ্ছেন রোহিত শর্মা, মোট ৪ জনের নাম পাঠানো হল প্রস্তাবে

ভারতীয় ক্রিকেটে এর আগে কোনও ক্রিকেটারকে এই পদ্ধতিতে সম্মান জানানো হয়নি। স্টেডিয়ামের স্ট্যান্ড কোনও ক্রিকেটারের নামে বা ক্লাব হাউসে কিংবদন্তী ক্রিকেটারদের নামে আগে করা হয়েছে। কিন্তু কোনও চেয়ার কারও নামে আজীবন করে রাখার নজির এর আগে নেই। যদিও বিদেশে এই পন্থা আগে অবলম্বন করা হয়েছে। কিন্তু প্লেয়ারের নাম যদি মহেন্দ্র সিং ধোনি হয়, তাহলে সব কিছুই সম্ভব। কারণ চমক দেওয়া যে তার বরাবরের স্বভাব। অর্থাৎ এমসিএ-র সভায় বিষয়টি পাশ হয়ে গেলেই মুম্বইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে একটি আসন আজীবন সংরক্ষিত থাকতে চলেছে এমএসডির নামে।