রবিবার ভারত-ওয়েস্ট ইন্ডিজ একদিনের সিরিজের শেষ ম্যাচ। কটকে সেই ম্যাচে মাঠে নামার আগে ভারতীয় দলে পরিবর্তন করতে হল। চোটের জন্য জাতীয় দল থেকে ছিটকে গেলেন দীপক চাহার। তাঁর বদলে শেষ ম্যাচে বিরাটদের সঙ্গে মাঠে নামবেন দিল্লির ফাস্ট বোলার নভদীপ সাইনি। বুধবার বিশাখাপত্তনমে দ্বিতীয় একদিনের ম্যাচ খেলার পর দীপক দলের ডাক্তারদের জানান পিঠে ব্যাথা হচ্ছে তাঁর। ডাক্তাররা পরীক্ষার জানিয়েছেন, দীপকের কিছুটা বিশ্রামের প্রয়োজন। তাই শেষ ম্যাচে তাঁকে দলের বাইরে রাখের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তাঁর বদলে জাতীয় দলে সুযোগ পেলেন নভদীপ সাইনি। দলের সঙ্গে সরাসরি কটকে যোগ দেবেন দিল্লির বোলার। 

 

 

আরও দেখুন - Live IPL Auction 2020- কলকাতায় আজ বিলিয়ন ডলার ক্রিকেটের নিলাম, ভাগ্য নির্ধারণ ৩৩২ ক্রিকেটারের

চেন্নাইতে প্রথম ম্যাচে হারের পর বুধবার বিশাখাপত্তনমে দ্বিতীয় ম্যাচে দুরন্ত ভাবে ঘুড়ে দাঁড়িয়েছে ভারত। ব্যাট হাতে রোহিত শর্মা ও কেএল রাহুল যেখানে জোড়া শতরান করেছেন, তেমনই স্লগ ওভারে ব্যাট করতে নেমে ঝড় তুলেছেন শ্রেয়স আইয়ার ও ঋষভ পন্থ। বল হাতে দীপক চাহার ও শার্দুল ঠাকুর খুব বেশি ভাল পারফর্ম করতে না পারলেও মহম্মদ সামি ও কুলদীপ যাদব ম্যাচের রং বদলে দিয়েছেন। কুলদীপ বুধবার হ্যাটট্রিক করেছেন। ভারতীয় ক্রিকেটের ইতিহাসে তিনিই প্রথম বোলার যার একদিনের ক্রিকেটে দুটি হ্যাটট্রিক আছে। তিন বলে তিন উইকেট নেওয়ার সুযোগ এসেছিল সামির সামনেও। তবে হ্যাটট্রিক করে উঠতে পারেননি সামি। কিন্তু সামি ও কুলদীপের বোলিং ভারতকে অনেকটা স্বস্তি দিয়েছে। 

আরও পড়ুন - পাকিস্তানে টেস্ট খেলতে যাবে না বাংলাদেশে, বিসিবি’র ঘোষণায় ক্ষুব্ধ পিসিবি

শেষ ম্যাচে কটকে নামার আগে বিরাট কোহলিকে একটা বিষয় সব থেকে চাপে রাখবে। সেটা দলের ফিল্ডিং। কারণ প্রথম ম্যাচের মত দ্বিতীয় ম্যাচেও একাধিক ক্যাচ ফেলেছেন টিম ইন্ডিয়ার তারকারা। দীপক চাহারের হাত থেকেও ক্যাচ পড়েছে। চোটের জন্য শেষ ম্যাচে তিনি না থাকায় নভাদীপের প্রথম দলে খেলাটা নিশ্চিত। কারণ দীপক প্রথম দলের ক্রিকেটার। হাতে পেস বোলারের অপশনও নেই। তাই দলের সঙ্গে যোগ দিয়ে সরাসরি মাঠে নেমে পরতে হবে নভদীপ সাইনিকে। 

আরও পড়ুন - গোল শূন্য এল ক্লাসিকো, মাঠের বাইরে সংঘর্ষ পুলিশ ও সমর্থকদের মধ্যে