জীবনের ইনিংসে ৩৩ টি বছর কাটিয়ে ফেললেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের হিটম্যান, রোহিত শর্মা। মাঝরাত থেকেই বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মে তাঁকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানাতে শুরু করেন তাঁর অনুরাগীরা। অনেকে অনুরাগী তার পুরনো দিনের ছবি পোস্ট করেও শুভেচ্ছা জানান। অনেক ভক্ত রোহিতের খেলা শ্রেষ্ঠ কিছু ইনিংসের ভিডিও পোস্ট করে তাঁকে জন্মদিনের অভিনন্দন জানান।

আরও পড়ুনঃশোয়েব আখতারের বিরুদ্ধে মানহানি ও ফৌজদারি ধারায় মামলা দায়ের পিসিবির আইনি উপদেষ্টার

একদিনের ক্রিকেটে সারা বিশ্বের মধ্যে একমাত্র ব্যাটসম্যান হিসাবে তিন-তিনটে দ্বিশতরান করার অনন্য নজিরের একচ্ছত্র মালিক রোহিতের জন্ম ১৯৮৭ সালের ৩০ শে এপ্রিল। মহারাষ্ট্রের নাগপুর জেলার বানসোড়ে জন্মেছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটের হিটম্যান। মুম্বইয়ের হয়ে ঘরোয়া ক্রিকেটে খেলেছিলেন তিনি। রোহিতের জাতীয় দলে অভিষেক ঘটে ২০০৭ সালে। আয়ারল্যান্ডের বিরুদ্ধে নিজের প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেন তিনি। মূলত মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসেবে কেরিয়ার শুরু করলেও কেরিয়ারের দ্বিতীয় ভাগে পৌঁছে ওপেনার হিসাবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেন রোহিত। ভারতীয় দলের তারকার ব্যাট যেদিন কথা বলতে শুরু করে, সেদিন প্রায় অসম্ভব লক্ষ্যও সম্ভব হয়ে ওঠে।

আরও পড়ুনঃসেরা নয়,শত্রু একাদশ বাছলেন মাইক হাসি,দলে তিন ভারতীয়

আরও পড়ুনঃকরোনার কারণে বাতিল ইষ্টবেঙ্গল বনাম ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের প্রদর্শনী ম্যাচ

অনেকেই জানেন না একসময় রোহিত ব্যাটসম্যান নয় বোলার হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হতে চেয়েছিলেন। তার স্বপ্ন ছিল একজন সেরা অফস্পিনার হয়ে ওঠা। এমনকী, ক্রিকেট খেলা শুরু করেছিলেন অফস্পিনার হিসেবে। সেই সময় রোহিত জুনিয়র ক্রিকেট খেলতেন। ২০০৫ সালে ভারত সফরে এসেছিল শ্রীলঙ্কার জুনিয়র টিম। সেই সময় ক্রিকেট খেলতে গিয়ে সীমিত ওভারের একটি ম্যাচে রোহিতের ডান হাতের একটি আঙুল ভেঙে যায়। এই চোটের ফলে, তার বোলার হওয়ার স্বপ্ন শেষ হয়ে যায়। কারণ, বল ঠিকমতো গ্রিপ করতে রোহিতের সমস্যা হত। সেখান থেকেই তিনি পুরোপুরি ব্যাটিংয়ের ওপর মনোনিবেশ করেন। সেখান থেকেই যাত্রা শুরু হয় তার হিটম্যান হয়ে ওঠার।