বিশ্ব জুড়ে নিজের মারণ থাবা বিস্তার করেছে করোনা ভাইরাস। লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। কোভিড ১৯ প্রাণ পিপাসু ভাইরাসের কবল থেকে বাদ যায়নি পাকিস্তানও।  পাকিস্তানে করোনার প্রকোপে হাজারের বেশি লোক অসুস্থ। গত এক সপ্তাহে করোনা আক্রান্তদের সংখ্যা তিনগুণ বেড়েছে সে দেশে। পরিস্থিতি মোকাবিলায় যথাসাধ্য চেষ্টা করছে পাক সরকার। এবার করোনা মোকাবিলায় এগিয়ে এলেন পাকিস্তান ক্রিকেট দলের প্রাক্তন প্লেয়ার তথা অধিনায়ক শাহিদ আফ্রিদি। আফ্রিদির এই উদ্যোগকে স্বাগত জাানিয়েছেন আফ্রিদির অনুগামী ও পাক প্রশাসন।

আরও পড়ুনঃলকডাউনকে সমর্থন সচিন তেন্ডুলকরের, সোশাল মিডিয়ায় দেশবাসীকে ঘরে থাকার বার্তা

করোনা মোকাবিলায় পাকিস্তানেও গৃহবন্দী সাধারণ মানুষ। যা এই মারণ ভাইরাসের হাত থেকে বাঁচতে গেলে অত্যাবশ্যক। কিন্তু গৃহবন্দী থাকার ফলে সাধারণ গরীব মানুষরা একধিক সমস্যায় পড়ছে পাকিস্তানের। বিশেষ করে অন্নের সমস্যা। তাই করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ময়দানে নামলেন পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার শাহিদ আফ্রিদি।  গরীব মানুষদের সাহায্যের জন্য এগিয়ে এলেন তিনি। করোনার জেরে পাকিস্তানে গৃহবন্দি মানুষদের বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী তুলে দেন তিনি। গত কয়েক দিন ধরেই নিজের ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে আফ্রিদি সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন তাঁদের দিকে। শুধু খাদ্য সামগ্রীই নয়, করোনা ভাইরাসকে প্রতিহত করতে প্রয়োজনীয় নির্দেশাবলী ও সাধারণ মানুষের হাতে তুলে দেন আফ্রিদি। যা দেখে টুইটারে প্রশংসা করেন হরভজন সিংহ। তিনি লেখেন, “মানবতার দারুণ নিদর্শন। ভগবান আমাদের সবাইকে আশীর্বাদ করুন। আফ্রিদি, তোমাকে আরও শক্তি দিন। পুরো বিশ্বের জন্য প্রার্থনা থাকল।”

 

আরও পড়ুনঃকরোনা মোকাবিলায় অর্ধেক বেতন দেওয়ার সিদ্ধান্ত বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের

আরও পড়ুনঃকরোনা মোকাবিলায় এক মিলিয়ন ইউরো দান করলেন মেসি

এর প্রতিক্রিয়া হিসেবে হরভজনের উদ্দেশে আফ্রিদি লেখেন, “মানবতা সবকিছুর ঊর্ধ্বে। তোমার এই কথাগুলোর জন্য ধন্যবাদ। পুরো বিশ্বের এখন একত্রিত হওয়া দরকার। করোনার বিরুদ্ধে বিশ্বব্যাপী লড়াইয়ে গরিবদের পাশে দাঁড়ানো আমাদের সম্মিলিত দায়িত্ব।” আফ্রিদি কয়েকটা ছবিও পোস্ট করেছেন তাঁর উদ্যোগের। সবাইকে এগিয়ে আসার অনুরোধও করেছেন।