গত ১৫ জুলাই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের দাদা তথা সিএবি সচিব স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্য়ায়। যেই খবর প্রকাশ্যে আসার পরই আতঙ্ক গ্রাস করেছিল বাংলার ক্রিকেট মহল থেকে গোটা গঙ্গোপাধ্য়ায় পরিবারকে। করোনা রিপোর্ট পজেটিভ আসার পরই ১৫ জুলাই রাতেই কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্য়ায়কে। একই বাড়িতে থাকার কারণে স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্য়ায়ের করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর হোম কোয়ারেন্টাইনে চলে যান সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও তার পরিবার। সিএবির কাজে স্নেহাশিসের সঙ্গে সাক্ষাৎ হওয়ার কারনে কোয়ারেন্টাইনে চলে যান সিএবি প্রেসিডেন্ট অভিষেক ডালিমিয়াও।

আরও পড়ুনঃসামনে এল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট

স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্যায় হাসপাতালে ভর্তি হওয়ার পর কেটে গিয়েছে ১০ দিন। তার দ্রুত আরোগ্য কামনার পাশাপাশি সকলেরই কৌতুহল ছিল জানার কেমন আছেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্টের দাদা। করোনা আক্রান্ত বলে বেসরকারি হাসপাতালের তরফে তেমনভাবে কিছু জানানো না হলেও সূত্র মারফৎ জানা গিয়েছে,এখন অবস্থা স্থিতশীল রয়েছে স্নেহাশিস গঙ্গোপাধ্য়ায়ের। সামান্য কিছু সমস্যা রয়েছে সিএবি সচিবের, কিন্তু ভয়ের কোনও কারণ নেই বলে জানানো হয়েছে। তবে তার শরীরে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এখনও রয়েছে কিনা সেই প্রসঙ্গে কিছু জানানি হয়নি হাসপাতালের তরফে।

আরও পড়ুনঃকরোনা আবহে সেপ্টেম্বরে হতে পারে বিশ্ব ফুটবলের মেগা ফাইট, মুখোমুখি ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা

আরও পড়ুনঃঅনলাইন ক্লাসের জন্য রোজ পাহাড়ে ওঠেন রাজস্থানের হরিশ, ছবি শেয়ার করে পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস সেওয়াগের

তবে এরই মধ্যে স্বস্তির খবর করোনা পরীক্ষার ফল নেগেটিভ এসেছে বিসিসিআই প্রেসিডেন্ড সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের। শুক্রবারই লালারসের রিপোর্ট হাতে পেয়েছেন মহারাজ। নিজে এ বিষয়ে কিছু না জানালেও, সৌরভের ঘনিষ্ঠ মাধ্যম থেকে জানা গিয়েছে ফল নেগেটিভ এসেছে। সৌরভের করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পর স্বস্তিতে সৌরভ ও তার গোটা পরিবার। এবার শুধু বড় ছেলে সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে বাড়ি ফেরার অপেক্ষায় গোটা গঙ্গোপাধ্য়ায় পরিবার।