ভারতীয় ক্রিকেট দলের সফল অধিনায়কদের তালিকায় সৌরভকে সবার ওপরে রাখতে চান অনেক ক্রিকেট বিশেষজ্ঞই। দাদার হাত ধরেই বদলে গিয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেট। মাঠে দল কি ভাবে খেলবে বা দলে তিনি কোন কোন ক্রিকেটারদের চান, এই সব বিষয় নিয়ে বোর্ড কর্তাদের সঙ্গে আলোচনা করলেও কোনও আপস করতেন না মহারাজ। দলের আভ্যন্তরীণ বিষয়ে বোর্ড কর্তাদের নাক গলান সৌরভের একবারেই পছন্দ ছিল না। সেই সৌরভই এবার বোর্ড সভাপতির আসনে। ২৩ তারিখ আনুষ্ঠানিক ভাবে দায়িত্ব নেওয়ার পর ২৪ তারিখ অধিনায়কের সঙ্গে দেখা করবেন তিনি। আর সেই বৈঠকে বোর্ড সভাপতির মত করেই কথা বলতে চান মহারাজ। 

আরও পড়ুন - রান ৫২৯, গড় ১৩২, ২টি সেঞ্চুরি একটি ডাবল সেঞ্চুরি, সিরিজ সেরা ‘ওপেনার’ রোহিত

২৪ তারিখ ভারত বাংলাদেশ টি২০ সিরিজের দল নির্বাচন। বিরাট এই সিরিজে খেলতে চান না। টিম ম্যানেজমেন্টও চাইছেন অধিনায়ককে কিছুটা বিশ্রাম দিতে। কিন্তু সৌরভ কি তাতে রাজি হবেন? এই প্রশ্নের উত্তরেই হবু বোর্ড সভাপতির সাফ কথা, তিনি অধিনায়কের সঙ্গে দেখা করবেন বোর্ড সভাপতির মত করেই। তাই বিরাট যদি মনে করেন বিশ্রাম নেবেন, তাহলে সেটা তিনি করতেই পারেন। কারণ বিরাট দলের অধিনায়ক। এই উত্তর থেকেই সৌরভ পরিস্কার করে দিতে চাইছেন, বোর্ড সভাপতির পদে বসে একজন কর্ম কর্তার মতই তিনি দলের সঙ্গে কথা বলবেন। কোনও ভাবেই দলের আভ্যন্তরীণ বিষয়ে অযথা না গলাতে রাজি নন তিনি। 

আরও পড়ুন - মাত্র দুই ওভারেই শেষ দক্ষিণ আফ্রিকা, ঘরের মাঠে টানা ১১ সিরিজ জয় টিম ইন্ডিয়ার

অস্ট্রেলিয়া সফর থেকে টানা ক্রিকেটের মধ্য আছেন ভারত অধিনায়ক। ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে একদিনের সিরিজ, আইপিএল, বিশ্বকাপ, ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের পর এবার দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে টি২০ ও টেস্ট সিরিজ। ভারতীয় দলের ওয়ার্ক লোড ম্যানেজমেন্ট অনুযায়ী অধিনায়ককে বিশ্রাম দেওয়ার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। বিরাটও তাতে রাজি। আর এই বিষয়ে কোনও হস্তক্ষেপ করতে রাজি নন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়। নিজে যখন অধিনায়ক ছিলেন তখন বোর্ডের কাছে স্বাধীনতা চেয়েছিলেন। আর বোর্ড সভাপতি হয়ে বিরাটের দলকে সেই স্বাধীনতা দিতে চাইছেন মহারাজ। 

আরও পড়ুন - বিসিসিআই সভাপতির প্রথম পদক্ষেপ, বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে কথা বলতে পারেন সৌরভ