১০ জুন ২০১৯ দীর্ঘ প্রায় দু দশকের ক্রিকেট কেরিয়ারকে বিদায় জানিয়েছিলেন ভারতীয় ক্রিকেটে অন্যতম স্টাইলিশ ও বিধ্বংসী ক্রিকেটার যুবরাজ সিং। ২০১১ ক্রিকেট বিশ্বকাপে ম্যান অব দ্য সিরিজ নির্বাচিত হয়েছিলেন যুবি। তারপরই ক্যান্সারে আক্রান্ত হন তিনি। মারণ রোগকে হারিয়ে ফের ক্রিকেটে কামব্যাকও করেছিলেন পঞ্জাব দ্য পুত্তর। কিন্তু তারপর থেকে ফর্মের ওঠা পড়ার কারণে দলে নিয়মিত জায়গা পাকা করতে পারেননি যুবরাজ। অবশেষে অনেক দুঃখেই যে ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছিলেন যুবি, সেটা তার অবসরের সাংবাদিক সম্মেলন দেখেই বোঝা গিয়েছিল। চোখের জল সেদিন বাঁধ মানেনি ছয় ছক্কার নায়কের। 

আরও পড়ুনঃবউদির পর এবার কি করোনা আক্রান্ত সৌরভের দাদা,কী জানাল বিসিসিআই প্রেসিডেন্টের পরিবার

কিন্তু কেনও হঠাৎ অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন যুবরাজ সিং। তাও আবার ২০১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের মাঝেই অবসরের ঘোষণা। সেই কারণই এবার জানালেন যুবরাজ। তিনি বলেন, পঞ্জাবতনয় বলেন,'জীবন যখন গতিসর্বস্ব হয়ে ওঠে, তখন অনেক কিছুই বোঝা যায় না। আমি ২-৩ মাস বাড়িতে বসেছিলাম। তখন আমার মনে হয়েছিল ক্রিকেট আমাকে আর মানসিক দিক থেকে সাহায্য করছে না। আমার কেবলই মনে হত, কবে অবসর নেব। অবসর নেওয়া কি সত্যিই উচিত? তা হলে কি আমি অবসর নিয়েই ফেলব না কি  আরও একটা মরসুম খেলব?এ সব চিন্তাই ঘুরপাক খেত। বিশ্বকাপের দলে ব্রাত্য। তাই সিদ্ধান্ত নিই ক্রিকেটকে ছেড়ে জীবন এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার সময় এসে গিয়েছে।' এখন আর ক্রিকেটকে তিনি মিস করেন না। কারণ যুবি বলছেন,'অনেক বছর ক্রিকেট তিনি খেলে ফেলেছেন। ক্রিকেট খেলার সময়ে ভাল করে রাতে ঘুমোতে পারতেন না। যুবি বলেছেন, এখন রাতে তাঁর ভাল ঘুম হয়। ক্রিকেটের জন্যই অসংখ্য মানুষের ভালবাসা পেয়েছেন। ভক্তরা তাঁকে শ্রদ্ধা করেন। সেই অনুভূতি বুকে নিয়েই সরে যেতে চেয়েছিলেন যুবরাজ।'

আরও পড়ুনঃঅবস্থান বদল বিসিসিআইয়ের, আইপিএলে চিনা স্পনসর নিয়ে বৈঠকে গভর্নিং কাউন্সিল

আরও পড়ুনঃআজ রাতে মাঠে ফিরছে সিঁরি আ,চিনে নিন লিগের ইতিহাসে সেরা ১০ লেজেন্ডদের

চলতি বছরের ১০ জুন আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর প্রথম বর্ষপূর্তি ছিল যুবরাজ সিংয়ের। সকাল থেকেই ভক্তদের ভালবাসায় ভেসে যান পঞ্জাব দ্য পুত্তর। তার কোটি কোটি ভক্ত যে তাকে এখনও একটুও ভোলেননি তার প্রমাণও পান যুবি। অবসরের প্রথম বর্ষপূর্তিতে যুবরাজের উদ্দেশ্যে আবেগ ঘন পোস্ট করেন স্বয়ং মাস্টার ব্লাস্টার সচিন তেন্ডুলকর। এছাড়াও অন্য়ান্য ভারতীয় দলের সদস্যরাও তাকে ভালবাসা জানান। দিবের শেষে ভক্তদের উদ্দেশ্যেও সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে বার্তা দিয়েছিলেন যুবরাজ। যুবরাজের সকল অনুগামীদের বক্তব্য ছিল একটাই,'আমরা কোনও দিনই ভুলব না ছয় ছক্কার নায়ককে।'