করোনার গ্রাসে বাংলার অভিনয় জগত। যার প্রভাব পড়েছে এই শিল্পের সঙ্গে জড়িত মানুষদের ওপর। বিশেষভাবে প্রভাবিত পার্শ্বশিল্পীরা। প্রতিদিনের কাজের বিপরীতে মিলত অর্থ। নেই কাজ, তাই বন্ধ উপার্জনও। এমনই পরিস্থিতিতে অর্থ সঙ্কটের মুখে পড়েছেন বহু মানুষ, টি বয় থেকে শুরু করে স্পটবয়, লাইটম্যান, প্রত্যেকেই সমস্যায় পড়েছেন। যার জন্য এইসব শিল্পীদের পাশে দাঁড়াতে উদ্যোগী হয়েছে আর্টিস্ট ফোরাম। 

আরও পড়ুনঃ গ্যালাক্সি এখন যেন বিগ বস-এর ঘর, কোয়ারেন্টাইন বদলে দিল সমীকরণ

এক পাশে যেমন ধরা দিয়েছে টলি পাড়ারএমন চিত্র, ঠিক তেমনই আবার টলিউডের দুঃস্থ তারকারা লকডাউনের ফলে ভুগচ্ছেন আর্থিক সংকটে। একের পর এক ধারাবাহিকের শ্যুটিং বন্ধ। বন্ধ রয়েছে টলিপাড়া। এমন পরিস্থিতিতে বাংলা ইন্ডাস্ট্রির আর্টিস্ট ফোরাম এগয়ে এল সাহায্যে। চিত্রগ্রাহক থেকে শুরু করে মেকাপ আর্টিস্ট, ও বিভিন্ন সহ অভিনেতারা এখন পরিস্থিতির কবলে পড়ে দিশেহারা। তাঁদের জন্য ইতিমধ্যেই উদ্যোগ নিয়েছে আর্টিস্ট ফোরাম। তৈরি করা হয়েছে ৫ লক্ষ টাকার একটি ফান্ড। 

আরো পড়ুনঃ করোনা মোকাবিলায় ময়দানে শিল্পীরা, প্রিয়াঙ্কা-শাহরুখের উদ্যোগে লড়ার সাহস পেল ভারতীয় জনতা

আর্টিস্ট ফোরামের সম্পাদক অরিন্দম গন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে জমা পড়েছে ইতিমধ্যে ৫১২টি আবেদন পত্র। অর্থসাহায্য চাওয়া শিল্পীদের মাসিক ২০০০ টাকা করে দেওয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যেই ৪০০ জনের কাছে পৌঁচেছে এই টাকা। আগামী তিন মাস চলবে এই ভাতা। এর পাশাপাশি এক লক্ষ টাকা অনুদান দেওয়া হয়েছে থিয়েটর কর্মীদের জন্যও। পরিস্থিতি কবে স্বাভাবিক হবে জানা নেই। এই কঠিন সময় আর্টিস্ট ফোরাম পাশে পেলেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কেও। সাহায্যে তিনিও হাত বাড়ালেন। ইতিমধ্যেই একাধিক তারকা অর্থ সাহায্য করেছেন। তবে ফান্ড আরো বৃদ্ধি করতে হবে। 

করোনা মোকাবিলায় রক্ষা করুন নিজেকে, মেনে চলুন 'হু' এর পরামর্শ

সাবধান, করোনা আতঙ্কের মধ্যে এই কাজ করলেই হতে পারে জেল

কী করে করোনার হাত থেকে রক্ষা করবেন আপনার বাড়ির বয়স্ক সদস্যদের, রইল তারই টিপস

শরীরে কীভাবে থাবা বসায় করোনা, জানালেন বিশেষজ্ঞরা