Asianet News BanglaAsianet News Bangla

'স্বাগতালক্ষ্মী কে?' কেকে- রূপঙ্কর বিতর্কের শিকার বাংলার আর এক সঙ্গীতশিল্পী

বলিউড গায়ক কেকে- র মৃত্যুর পর থেকেই উত্তাল হয়ে উঠেছে সোশ্যাল মিডিয়া। একটা গোটা জেনারেশনকে নিজের অনবদ্য কিছু গান দিয়ে মাতিয়ে রেখেছিলেন যিনি তাঁর উদ্দেশ্যেই 'হু ইজ কেকে?' বলে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়েছিলেন বাংলার সঙ্গীতশিল্পী রূপঙ্কর বাগচী। এরপর থেকেই নেটদুনিয়ায় শুরু হয় চরম ট্রোলিং, এমন কি খুনের হুমকির অভিযোগ ও তুলেছেন রূপঙ্কর বাগচীর স্ত্রী। এবার এই বিতর্কের শিকার হতে হল বাংলার অপর এক শিল্পীকে।  
 

Swagatalaxmi Dashgupta has been insulted on a wedding party after KK Rupankar controversy anbrd
Author
Kolkata, First Published Jun 4, 2022, 1:32 PM IST

রাজ্যজুড়ে সঙ্গীতশিল্পী কেকে এবং রূপঙ্কর বাগচীর বিতর্ক চরমে উঠেছে। বিতর্কের জের এতটাই তুঙ্গে উঠেছে যে সেই রেশ টেনে এবার চরম অপমানের শিকার হতে হল বাংলার আর এক সঙ্গীতশিল্পী এবং বিশিষ্ট গায়িকা স্বাগতালক্ষ্মী দাশগুপ্তকে। বুধবার স্বর্ণাশিস মুখোপাধ্যায়ের বউভাতে নিমন্ত্রিত ছিলেন শিল্পী। নাগেরবাজার এলাকায় সেই অনুষ্ঠানে শিল্পী যেতেই হুড়োহুড়ি পড়ে যায় আমন্ত্রিতদের মধ্যে। যদিও শিল্পীর ছাত্রছাত্রী এবং অনুরাগীরা জানিয়েছেন যে তাঁর মত এত বড় মাপের শিল্পীর জন্য এহেন উন্মাদনা তো স্বাভাবিক। 

সম্প্রতি টানা ১৬৬ দিন একের পর এক গান ইউটিউবে আপলোড করে বিশ্বরেকর্ড করেছেন তিনি। গীতবিতানের সবকটি গান গাওয়ার রেকর্ড ও রয়েছে তাঁর ঝুলিতে। রবীন্দ্রসঙ্গীত শিল্পী হিসাবে স্বাগতালক্ষ্মী দাশগুপ্তর বিশাল খ্যাতি, এবার তাঁর মত শিল্পীকে বিয়েবাড়িতে এই কাছে পেয়ে একটু ছবি তোলা বা কথা বলতে চাওয়া বিশেষ অস্বাভাবিক কোনও বিষয় নয় বলেই জানিয়েছেন স্বাগতালক্ষ্মী দাশগুপ্তর শুভাকাঙ্খীরা। এর মাঝেও কেন অপমানিত হতে শিল্পীকে জানেন? কারণ তাঁর সঙ্গে হওয়া এই রূপ মাতামাতিকে ভালো চোখে দেখেন নি পাত্রীর মা। ক্ষুব্ধ হয়ে শিল্পীর দিকে আঙুল তুলে চিৎকার করে তিনি বলেন, 'হু ইজ স্বাগতালক্ষ্মী?' এমন কি স্বাগতালক্ষ্মী দাশগুপ্তকে সেখান থেকে বেরিয়ে যেতে ও বলেন তিনি।

আরও পড়ুন- সামনে বোর্ডের পরীক্ষা, এভাবে কি কেউ দেখতে পারে 'বাবা'কে ? মেয়েকে নিয়ে চিন্তায় রূপঙ্করের স্ত্রী

আরও পড়ুন- 'বর টা বড়ই বোকা, দুনিয়া দাড়িতে নেহাত কাঁচা' সোশ্যাল মিডিয়ায় স্বামীর জন্য কবিতা লিখলেন চৈতালি

আরও পড়ুন- 'কেকে-র প্রতি ব্যক্তিগত রাগ নেই', গুছিয়ে বলতে না পারার জন্যই বিতর্ক- অবেশেষে বললেন রূপঙ্কর

এরপর অপমানিত বোধ করে তৎক্ষণাৎ সেই বিয়েবাড়ির অনুষ্ঠান ছেড়ে বেরিয়ে যান স্বাগতালক্ষ্মী দাশগুপ্ত। যদিও বিশিষ্ট শিল্পীকে অপমান করে থানায় অভিযোগ দায়ের করতে চেয়েছিলেন শিল্পীর অনুরাগীরা, কিন্তু স্বাগতালক্ষ্মী তাতে বাধা দেন। কারণ তিনি মনে করেন, 'ঘটনাটা অত্যন্ত দুঃখজনক। ওই মহিলা বয়সে যথেষ্ট প্রবীণ এবং অভিজ্ঞ। ফলে এটাকে শিশুসুলভ আচরণ বলা যায় না।' এরপর থেকেই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে যে তবে কি রূপঙ্কর বাগচীর ফেসবুক লাইভ বিতর্কের শিকার হলেন স্বাগতালক্ষ্মী দাশগুপ্ত?

আদতে ঘটনার সূত্রপাত হয় কেকে- কে নিয়ে করা রূপঙ্কর বাগচীর ফেসবুক লাইভকে ঘিরে। যেখানে তিনি সোজা প্রশ তুলেছিলেন যে, 'আমাদের মত বাঙালি শিল্পীদের নিয়ে আপনারা এত উত্তেজনা দেখান না কেন? হু ইজ কেকে? উই আর বেটার দ্যান এনি কে।' এরপর থেকেই একের পর এক কটাক্ষের সম্মুখীন হতে হয়েছে তাঁকে।  এখন প্রশ্ন হল এবার কি সেই ঘটনার জন্যই এহেন পরিস্থিতির শিকার হলেন স্বাগতালক্ষ্মী দাশগুপ্ত? এই প্রসঙ্গে স্বাগতালক্ষ্মী দেবীর প্রতিক্রিয়া, 'হতে পার! আমি রূপঙ্করের গানের ভক্ত কারণ ও ভাল গায়ক। কিন্তু কেকে সম্বন্ধে ও যেটা বলেছে সেটা আমি সমর্থন করছি না। রূপঙ্কর ওই আক্রমণাত্মক ভিডিওটা না করলেই পারত।'

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios