নেশনস লিগের ম্যাচে মঙ্গলবার রাতে মুখোমুখি হয়েছিল সুইডেন এবং পর্তুগাল। পায়ের আঙুলের ক্ষত সারিয়ে সুইডেনের ঘরের মাঠে পর্তুগালের প্রথম একাদশে প্রত্যাবর্তন করেছিলেন পর্তুগাল অধিনায়ক ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। এর আগে ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো সুইডেনের বিরুদ্ধে সাক্ষাতে করেছিলেন ৫ টি গোল। শেষবার যখন পর্তুগাল সুইডেনের ঘরের মাঠে খেলতে নেমেছিল তখন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোর হ্যাটট্রিকেই জুলাটান ইব্রাহিমোভিচের সুইডেন-কে ৩-২ ফলে হারিয়েছিল পর্তুগিজরা। তাই নিজের শততম গোলের মুখে দাঁড়িয়ে রোনাল্ডো বিশেষ কিছু করে দেখাবেন এমন প্রত্যাশা সকলেরই ছিল। 

আরও পড়ুনঃআইপিএলে সব থেকে বেশি মেডেন ওভার করেছেন কোন বোলার, দেখুন তালিকা

যদিও ম্যাচের শুরু থেকেই সুইডেন মাঠে তাদের প্রভাব বিস্তার করার চেষ্টা করে। মাঝমাঠে লোক বাড়িয়ে পর্তুগালকে নিজেদের স্বাভাবিক খেলা খেলতে দেয় না সুইডিশ ফুটবলাররা। মাঝে চোট পেয়ে পর্তুগালের ম্যান সিটি ক্লাবের তারকা বেনার্ডো সিলভা মাঠ ছাড়ায় চাপ বাড়ে পর্তুগালের ওপর। দু বার রোনাল্ডোর জোড়ালো শট গোল হওয়ার থেকে বাঁচান সুইডিশ গোলরক্ষক ওলসন। কিন্তু প্রথমার্ধর শেষ লগ্নে গোলপোস্ট থেকে ২৫ গজ দূরত্বে জোয়াও মৌতিনহো কে ফাউল করে লাল কার্ড দেখে মাঠ ছাড়েন গুস্তাব সেভিনসন। ফ্রি কিক নিতে এগিয়ে যান ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। রেফারির বাঁশি বাজার সাথে সাথে মাঠে উপস্থিত প্রত্যেকে বিস্ময়ের সাথে দেখেন সুইডিশ মানবপ্রাচীর টপকে রোনাল্ডোর দুর্দান্ত ফ্রি কিক ঝাঁপিয়ে পড়া ওলসনকে পরাস্ত করে গোল পোস্টের টপ কর্নার দিয়ে ঢুকে জালে জড়িয়ে যায়। ১৬৫ তম আন্তর্জাতিক ম্যাচে নিজের শততম গোলটি করেন রোনাল্ডো। 

আরও পড়ুনঃআইপিএল খেলতে গিয়ে মেয়ের সঙ্গে বালি মাখলেন রোহিত, আর কে কী করলেন, ছবি প্রকাশ মুম্বইয়ের

সেখানেই অবশ্য শেষ নয় রোনাল্ডো ম্যাজিকের। দ্বিতীয়ার্ধে ৭২ মিনিটে জোয়াও ফেলিক্সের কাছ থেকে বল পান রোনাল্ডো। ২০ গজ দূর থেকে নেওয়া তার দুর্দান্ত শট গোলপোস্টের কাছাকাছি পৌঁছে আচমকাই ডিপ করে ঝাঁপিয়ে পড়া অসহায় ওলসনের হাতের ওপর দিয়ে গোলে ঢোকে। জোড়া গোল করে দশজনের সুইডেনের বিরুদ্ধে পর্তুগালের জয় নিশ্চিত করে দেন রোনাল্ডো। এরপর তাকে বিশ্রাম দেওয়ার জন্য ৮১ মিনিটে তাকে তুলে দিয়েগো জটা-কে মাঠে নামান কোচ ফার্নান্দো স্যান্টোস। বাকি সময় স্কোরবোর্ড অপরিবর্তিতই থাকে

আরও পড়ুনঃধোনির অনুশীলনের নতুন ভিডিও শেয়ার করল সিএসকে, যা দেখে অবাক ইরফান পাঠান

২০০৪ ইউরোতে গ্রিসের বিরুদ্ধে নিজের দেশের হয়ে প্রথমবার গোল করেছিলেন তরুণ রোনাল্ডো। আজ ১৬ বছর পর কেরিয়ারের মধ্যগগন অতিক্রম করা বছর ৩৫-এর রোনাল্ডো করলেন নিজের দেশের হয়ে ১০০ এবং ১০১ নং গোল। ইরানের আল আদেই-এর রেকর্ড ভাঙতে প্রয়োজন আর ৯ গোলের। কাল রাতে যে ফর্ম দেখালেন সি আর সেভেন, তা ধরে রাখতে পারলে হয়তো সেই রেকর্ডও আর অধরা থাকবে না।