দেশ জুড়ে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা। দ্রুত গতিতে বাড়ছে মৃত্যুর হারও। একাধিক পদ্ধতি অবলম্বন করেও কিছুতেই নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না পরিস্থিতি। ক্রীড়া ক্ষেত্রেও ব্যাপক প্রভাব ফেলেছে এই মারণ ভাইরাস। কোভিড ১৯ এ আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল দেশের আরও এক ক্রীড়া ব্যক্তিত্বের। এবার করোনা ভাইরাস কাড়ল প্রাক্তন এক ফুটবলারের প্রাণ। প্রাণ পিপাসু ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হল প্রাক্তন মোহনবাগানের প্লেয়ার ই হামসাকোয়ার। মোহনবাগানে খেলা ছাড়াও,মহামেডানের হয়েও খেলেছেন তিনি।সন্তোষ ট্রফিতে দীর্ঘ দিন মহারাষ্ট্রের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছিলেন ই হামসাকোয়া।

আরও পড়ুনঃকরোনাকে হারিয়ে জীবন যুদ্ধে জয়ী হলেন প্রাক্তন পাক ওপেনার

মহারাষ্ট্রের হয়ে খেলার কারণে মুম্বইয়ে থাকতেন এই প্রাক্তন ফুটবলার। গত ২১ মে  স্ত্রী, পুত্র, পুত্রবধূ ও দুই নাতি নাতনিকে নিয়ে কেরলায় দেশের বাড়িতে যান। তারপর থেকেই অসুস্থতা বোধ করেন হামসাকোয়া। করোনা টেস্ট করলে রিপোর্ট পজেটিভ আসে তার। শুধু তিনি নয়, তার পরিবারের অন্যান্য ৫ সদস্যও করোনা ভাইরাসে আক্রান্তে হয়েছে। বর্তমানে তারা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পর থেকেই দ্রুত অবস্থার অবনতি হয় হামসাকোয়ার। নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হওয়ার পাশাপাশি হামসাকোয়ায় তীব্র শ্বাসযন্ত্রের সঙ্কট এবং কার্ডিয়াক সমস্যা ছিল। তাঁর শারীরিক অবস্থার অবনতি হওয়ায় তিনি মেডিকেল বোর্ডের নির্দেশে প্লাজমা থেরাপি করেন। কিন্তু কোনও কিছুতেই শেষ রক্ষা করা সম্ভব হল না। শনিবার ভোরে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন ই হামসাকোয়া।

 

আরও পড়ুনঃ৩০ হাজার দর্শক নিয়ে ফুটবল ম্যাচ,কোরানাকে থোরাই কেয়ার

আরও পড়ুনঃকেরিয়ারের শেষ স্বপ্নপূরণ নিয়ে সংশয়ে টেনিস তারকা লিয়েন্ডার পেজ

প্রাক্তন ফুটবলারের মৃত্যুর খবর দিয়ে ট্যুইটারে শোক প্রকাশ করে আইলিগে কেরালার ফুটবল দল গোকুলাম কেরালা এফসি। প্রয়াত ফুটবলারের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর পাশাপাশি তার পরিবারের দ্রুত সুস্থতাও কামনা করা হয় আই লিগের ক্লাবটির পক্ষ থেকে। তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করেছে গোকুলাম কেরালা এফসি। কিন্তু করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশের এক প্রাক্তন ফুটবলারের মৃত্যুর খবরে শোকস্তব্ধ ক্রীড়া জগৎ।