ফের ভারতীয় ফুটবলের আকাশে নক্ষত্র পতন। পিকে বন্দ্যোপাধ্যায়ের মৃত্যুর এক মাসের কিছু বেশি সময়ের মধ্যেই প্রয়াত হলেন দেশের আরেক কিংবদন্তী ফুটবালর চুনী গোস্বামী। ৮২ বছর বয়সে শেষ নিঃশ্বাস ত্য়াগ করলেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েই মৃত্যু হল প্রবাদ প্রতীম ফুটবালারের। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে,বৃহস্পতিবার যোধপুর পার্কের ফ্ল্যাটেই ছিলেন অসুস্থ চুনী গোস্বামী। দীর্ঘ দিন ধরে ভুগছিলেন বার্ধক্যজনিত সমস্যায়। বৃহস্পতিবার দুপুরে পরপর দুবার কার্ডিয়াক অ্যারেস্ট হয় তাঁর। এরপর স্থানীয় একটি বেসরকারি নার্সিংহোমে তড়িঘড়ি নিয়ে যাওয়া হয় তাঁকে। সেখানে ভর্তি হওয়ার পর এদিন বিকেল পাঁচটা নাগাদ আরও একবার হার্ট অ্যাটাক হয়ে বলে জানা গিয়েছে। তারপরই শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন চুনী গোস্বামী।

আরও পড়ুনঃকরোনার জের,বাংলার ঘরোয়া ক্রিকেট মরসুম বাতিল করতে পারে সিএবি

ভারতীয় ফুটবলে নিজের ছাপ রেখে গিয়েছেন চুনী গোস্বামী। ১৯৫৪ থেকে ৬৭ সাল পর্যন্ত টানা মোহনবাগান ক্লাবের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করেছেন চুনী গোস্বামী। এছড়া দেশের হয়ে ৫০টি  আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছেন তিনি। ১৯৬২ সালে চুনী গোস্বামীর অধিনায়কত্বেই এশিয়ান গেমসে সোনা জিতেছিল ভারতীয় ফুটবল দল।  ঘরোয়া লিগে মোহনবাগানের হয়ে সবচেয়ে সফল তিনি। ১৯৬৩ সালে অর্জুন পুরস্কার, ১৯৮৩ সালে পদ্মশ্রী এবং ২০০৫ সালে মোহনবাগান রত্ন পুরস্কারে সম্মানিত হন চুনী গোস্বামী। শুধু ফুটবলই নয়, ক্রিকেটেও সমান পারদর্শী ছিলেন চুনী গোস্বামী। একটা সময় বাংলার হয়ে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটও খেলেছেন। রনজি দলে জায়গায় পেয়েছিলেন। কিন্তু ফুটবলকেই পরে বেশি আপন করে নেন।

আরও পড়ুনঃফুটবলারদের একা একা ট্রেনিং সেন্টারে গিয়ে ট্রেনিংয়ের অনুমতি দিল লা লিগা কর্তৃপক্ষ

আরও পড়ুনঃঋষি কাপুরের মৃত্যুতে শোকস্তব্ধ ক্রীড়াজগৎ,শোক প্রকাশ সচিন,সৌরভ,কোহলিদের

চুনী গোস্বামী দীর্ঘ দিন ধরেই ভুগছিলেন হৃদরোগের সমস্যায়৷ সঙ্গেও সুগার, প্রস্টেট ও নার্ভের সমস্যা ছিল৷ ভারতীয় ফুটবলের কিংবদন্তী চুনী গোস্বামী৷ ভারতের ফুটবলকে বিশ্বের দরবারে পৌঁছে দিয়েছিলেন তিনি৷ কিংবদবন্তী ফুটবলারের প্রয়াণে শোকস্তব্ধ কলকাতা ময়দান। ভারতীয় ফুটবল মহলেও শোকের ছায়া। পিকে বন্দ্যোপাধ্যায়ের পর চুনী গোস্বামীর প্রয়াণ ভারতীয় ফুটবলের অপরিকল্পনীয় ক্ষতি বলেই মনে করছেন ফুটবল বিশেষজ্ঞরা।