তিন পয়েন্ট, আইলিগের প্রথম ম্যাচে মাঠে নামার আগে এই একটা মন্ত্রই ফুটবলারদের মধ্য ঢুকিয়ে দিতে চাইছেন মোহনবাগান কোচ কিভু ভিকুনা। আইজলে গিয়ে তাদের বিরুদ্ধে খেলাটা সহজ কাজ নয়। একে পাহাড়ে ম্যাচ তার ওপর কৃত্রিম ঘাসের মাঠ। চ্যালেঞ্জের সামনেই পরতে চলেছেন বেইতিয়ারা। বৃহস্পতিবার আইজল পৌছে অনুশীলন করেছে মোহনবাগান। শুক্রবারও হয়েছে অনুশীলন। তবে এই দুই পর্বের অনুশীলনে কতটা কৃত্রিম ঘাসের মাঠেরপ সঙ্গে মানিয়ে নিতে পারবেন বাগানের স্প্যানিশ ফুটবলাররা সেটা দেখার। কড়া চ্যালেঞ্জ আছে। কিন্তু মানসিক ভাবে তৈরি হয়েই মাঠে নামতে চলেছেন কিভু।  তাঁর দলে ছয় বিদেশি আছে কিন্তু প্রতিপক্ষ দলে আছে দুই বিদেশি। কিন্তু এটা কে কোনও ভাবেই অ্যাডভান্টেজ হিসেবে দেখছেন না মোহনবাগান কোচ। বরং অনেকটাই সমীহ করছেন প্রতিপক্ষকে। তবে মন্তর একটাই প্রথম ম্যাচ থেকে তিন পয়েন্ট চাই। 

আরও পড়ুন - টানা ব্যর্থতার ফল, চাকরি গেল আর্সেনাল কোচ উনাই এমেরির

অন্যদিকে আইজল গত মরসুমে সাত নম্বরে শেষ করেছে। সেবার লিগের শেষ দিকে এসে দলের দায়িত্ব নিয়েছিলেন স্ট্যানলি রোজারিও। এবার তিনি প্রথম থেকেই আছেন দলের সঙ্গে। তিনি একটা সময় মোহনবাগানের কোচের পদে ছিলেন। তবে সেই সময় ও বর্তমান সময়ের মধ্যে পার্থক্য অনেকটাই। তাই বর্তমান দলের সঙ্গে তুলনা করতে চাইছেন না। ঘরের মাঠে এই খেলায় আইজল কোচের ভরসা দলের তরুণ ব্রিগেড। সঙ্গে আছেন মাত্র দুই বিদেশি। স্ট্যানলির দল ঘরোয়া লিগের শীর্ষে রয়েছে। এটা সামান্য আত্মবিশ্বাস দিচ্ছে তাদের। তবে প্রথম থেকেই আক্রমণে ঝাঁপাতে চাইছেন না তিনি। বরং একটি দেখে খেলে এগিয়ে যাওয়াটাই তাঁর লক্ষ্য। 

আরও পড়ুন - এশিয়ার সেরা ক্লাব হবে মুম্বাই সিটি এফসি, আশা রণবীরের

শনিবার থেকেই শুরু হচ্ছে ১৩তম আইলিগ। শনিবার আইজল মোহনবাগান ম্যাচের পাশাপাশি বিকেলে রয়েছে আরও একটি ম্যাচ। সেখান মুখোমুখি হতে চলেছে গোকুলাম এফসি ও নেরোকা এফসি। খেলা গোকুলামের ঘরের মাঠে। এবারের লিগ নতুন ভাবেই যেন শুরু হচ্চে। নতুন সম্প্রচার ব্যবস্থা, নতুন সম্প্রচারকারী চ্যানেল। যেখানে ১১০টি ম্যাচই দেখানোর কথা হয়েছে। আইলিগে শুরু আগে লিগ সিইও সুনন্দ ধর বলছিলেন, কোনও একটি দলকে লিগ জয়ের ফেভারিট হিসেবে ধরা যাবে না। যে কোনও দল জিততে পারে লিগের খেতাব। আর এটাই আইলিগের সব থেকে ভাল দিক। 

আরও পড়ুন - ইডেনে পিঙ্ক বল টেস্টে থেকেই কাজ শুরু করেছে বিসিসিআই, ছবি উঠল ক্যামেরায়