মরসুম শুরুর আগেই ঘড় বদল করতে হয়েছে তাদের। দিল্লি ডায়নামোজ দেশের রাজাধানীর সঙ্গে সম্পর্ক ত্যাগ করে ওড়িশার রাজাধানী ভুবনেশ্বরকে নিজেদের নতুন আস্থানা হিসেবে বেছে নিয়েছে। দলেও নাম বদল হয়েছে। দিল্লি ডায়নামোজ এখন ওড়িশা এফসি নামে পরিচিত। কিন্তু ঘর বদলেও ঘরে থাকা হচ্ছে না এই ফ্রাঞ্চাইজির। টানা তিনটি অ্যাওয়ে ম্যাচ খেলার পর ২৪ নভেম্বর ঘরের মাঠে এটিকের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচ ছিল তাদের। কিন্তু হোম ম্যাচ বলা যাচ্ছে না আর এই ম্যাচকে। কারণ পরিকল্পনা মত ভুবনেশ্বরের কলিঙ্গ স্টেডিয়ামে খেলার কথা থাকলেও সেটা হচ্ছে না। 

আরও পড়ুন - ইডেনে দিন-রাতের টেস্টে থাকছেন কি ধোনি, ফিকে হয়ে যেতে পারেন বিরাট-রোহিতরা

এখন মাঠ খেলার উপযুক্ত করে তুলতে পারেনি স্টেডিয়াম কতৃপক্ষ। কাজ চলছে মাঠের। তাই  ঘর ছাড়া ওড়িশা এফসি। তবে শুধু একটি ম্যাচ নয়। প্রথম তিনটি হোম ম্যাচই তাদের খেলতে হবে বাইরে। আহমেদাবাদ ও পুণের মধ্যে মাঠ বেছে নেওয়ার চেষ্টা করছেন তারা। এখনও পর্যন্ত যা খবর তাতে, পুণেতেই প্রথম তিনটি হোম ম্যাচ খেলবে ওড়িশা এফসি। সেটা নিয়ে প্রস্তুতিও শুরু করে দিয়েছেন কর্তারা। ফ্রাঞ্চাইজির এক কর্তা জানিয়েছেন, প্রথম হোম ম্যাচের আগেই মাঠ তৈরি করে দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু অতিরিক্ত বৃষ্টির জন্য নাকি সেটা সম্ভব হয়নি। তাই হোম ম্যাচের স্থান বদল ছাড়া আর কোনও উপায় খোলা নেই তাদের সামেন। 

আরও পড়ুন - ডেভিস কাপের ম্যাচ ফসকালো পাকিস্তান, ভারতের দাবি মেনে সরছে ভেন্যু

এই কলিঙ্গ স্টেডিয়ম আগামী বছর দেশের মাঠে অনুষ্ঠিত হতে চলা অনুর্ধ্ব ১৭ মহিলা বিশ্বকাপের অন্যতম ভেন্যু। নভেম্বর মাসে মাঠের অবস্থা পরিদর্শন করতে আসার কথা কর্তাদের। তাই আইএসএলের থেকেও বিশ্বকাপ বেশি প্রাধান্য পাচ্ছে স্টেডিয়াম কতৃপক্ষের কাছে। চলতি সপ্তাহে বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নিম্নচাপের প্রভাবে আরও বৃষ্টি হতে পারে ওড়িশায়। সেটাও বড় মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে সবার কাছে। আইএসএলের চলতি মরসুম শুরু হওয়ার আগেই দিল্লি থেকে সরে এসে ভুবনেশ্বের ঘাঁটি গেড়েছিল এই ফ্রাঞ্চাইজি। কিছুটা লাভের মুখ দেখার আশা করেছিলেন তারা। কিন্তু এখন পরিস্থিতি যা তাতে লাভ তো দুরের কথা, উল্টে আরও ক্ষতির মুখে পরতে হতে পারে এই ফ্রাঞ্চাইজিকে। 

আরও পড়ুন - আগামী আইপিএলে আসছে ‘নো বল অম্পায়ার’, এখনই নয় পাওয়ার প্লেয়ার নিয়ম