নতুন বোর্ড কাজ শুরু করার পর মঙ্গলবার প্রথম বৈঠকে বসেছিল আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। মুম্বাইতে এই বৈঠকের স্বভাপতিত্ব করেন আইপিএল চেয়ারম্যান ও প্রাক্তন টেস্ট ক্রিকেটার ব্রিজেস প্যাটেল। সোমবারই সামনে এসেছিল বোর্ডের পাওয়ার প্লেয়ার কনসেপ্ট। আইসিসি’র করা সুপার সাব নিয়মকে একটু বদলে দিয়ে রিজার্ভ বেঞ্চের ক্রিকেটারকে মাঠে নামানোর প্রস্তাব দেওয়া হয়েছিল আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলকে। তবে আগামী আইপিএলে এই নিয়ম কার্যকর হচ্ছে না। ২০২১ আইপিএলের জন্য এই নিয়মকে তুলে রাখা হচ্ছে। 

আরও পড়ুন - ইডেনে দিন-রাতের টেস্টে থাকছেন কি ধোনি, ফিকে হয়ে যেতে পারেন বিরাট-রোহিতরা

আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিলেম মতে আগামী সপ্তাহেই শুরে হচ্ছে ভারতীয় ঘরোয়া ক্রিকেটের টুর্নামেন্ট সৈরয় মুস্তাক আলি ট্রফি। আইপিএল পাওয়ার প্লেয়ার নিয়ম চালু করার আগে সেটা ঘরোয়া ক্রিকেটে একবার দেখে নিতে চায় আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। যেহেতু আগামী সপ্তাহেই মুস্তাক আলি টুর্নামেন্ট শুরু হয়ে যাচ্ছে তাই পাওয়ার প্লেয়ার নীতি আগামী আইপিএলে থেকে চালু করতে চাইছেন না ব্রিজেশ প্যাটেলরা। তার বদলে নতুন আম্পায়র এনে চমক দিতে চলেছে আগামী আইপিএল। মাঠের দুই ফিল্ড আম্পায়ার ছাড়াও শুধুমাত্র নো বল দেখার জন্য থাকতে চলছেন একজন আলাদা আম্পায়ার। 

আরও পড়ুন - ভারতের সিরিজ জয়ের বাঁধা ঘূর্ণিঝড় মাহা, ম্যাচ ঘিরে অশনি সংকেত

গত বছর আইপিএলে একাধিক ম্যাচে ভারতীয় আম্পায়রদের সিদ্ধান্ত নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছিল। ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলিও প্রকাশ্যেই সমালোচনা করেছিলেন আম্পায়রদের। সব থেকে বেশি সমস্যা তৈরি হয়েছিল নো বলের সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে। ধোনি মাঠে নেমে পরেছিলেন আম্পায়ারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ দেখিয়ে।  একাধিক ম্যাচের রং বদলে গিয়েছিল ভুল সিদ্ধান্তে। সেই বিষয়টি মাথায় রেখে এবার মাঠে উপস্থিত দুই আম্পায়ারের ওপর থেকে চাপ কমাতে নতুন পন্থা নিল আইপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। আগামী আইপিএলে একজন আম্পায়ারের ওপর আলাদা দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে শুধুমাত্র নো বল দেখার। ঠিক যেমন টা হয় উয়েফা চাম্পিয়ন্স লিগে। গোল লাইনে একজন করে সহকারি রেফারি থাকেন বল গোল লাইন অতিক্রম করেছে কি না শুধু সেটা দেখার জন্য। এবার ক্রিকেটেও নো বল আম্পায়ার আনার পথে আইপিএল। 

আরও পড়ুন - ডেভিস কাপের ম্যাচ ফসকালো পাকিস্তান, ভারতের দাবি মেনে সরছে ভেন্যু