কাতার বিশ্বকাপ ২০২২ এর স্টেডিয়াম তৈরির জন্য মনোনীত সংস্থার বিরুদ্ধে উঠলো মারাত্মক অভিযোগ। আমিনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের তরফ থেকে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী ওই সংস্থাকে শো-কজ করা হতে চলেছে অভিযোগের ভিত্তিতে। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে তারা স্টেডিয়াম নির্মাণে নিযুক্ত কর্মরত শ্রমিকদের দীর্ঘদিন ধরে মাইনে দেননি। যা ওয়ার্কার্স ওয়েলফেয়ার স্ট্যান্ডার্ড বিরোধী কাজ বলে জানিয়েছে আমিনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল। 

আরও পড়ুনঃআইপিএলের মান নিয়ে আপোস করতে নারাজ কেকেআর

একজন কাতারের সাব-কন্ট্রাক্টটরের প্রায় ১০০ জন কর্মী, কাতার মেটা কোটসের হয়ে আল বায়াত স্টেডিয়াম নির্মাণের জন্য কাজ করছেন। কাতার আমিনেস্টির খবর অনুযায়ী স্টেডিয়াম নির্মাণ কার্যের সাথে যুক্ত কর্মীরা প্রায় ৭ মাস ধরে তাদের প্রাপ্য মাইনে পাচ্ছেন না। যদিও কাতার মেটা কোটসের তরফ থেকে এই ঘটনার কোনও সদুত্তর পাওয়া যায়নি। এর ঘটনার জন্য তাদের চুক্তি বরখাস্ত করা ছাড়া আর কোনও ব্যবস্থা নেওয়া হয় কিনা সেই বিষয়ের ওপর নজর থাকবে। 

আরও পড়ুনঃলা-লিগা এবং সিঁরি আ এর পর ফিরতে চলেছে মেজর লিগ সকার

আরও পড়ুনঃফ্রাঙ্কফুটে ইউরোপা লিগের বাকি অংশ আয়োজন করতে চায় ইউয়েফা

সুপ্রিম কমিটির তরফ থেকে জানানো হয়েছে ব্যাপারটি একেবারেই মেনে নেওয়া যায় না। শ্রমিকরা দীর্ঘদিন ধরে পরিশ্রম করে যাচ্ছেন অথচ তার শ্রমের মূল্য পাচ্ছেন না, ব্যাপারটি খুবই হতাশাজনক। মানবাধিকার লঙ্ঘন আইন রজু করা যায় কিনা সেই নিয়েও ভাবছেন তারা। কাতারের মাটিতে এইরকম অন্যায় কে কোনোভাবেই প্রশ্রয় দেওয়া হবে না বলে সাফ জানিয়েছেন তারা।