ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো এবং পাওলো দিবালার জুটি গত তিনটি ম্যাচে জয় এনে দিয়েছে জুভেন্তাসকে। টানা তিন ম্যাচে দুজনেই গোল করেছেন। এইবার তাদের নিয়ে মুখ খুললেন জুভে হেডকোচ মৌরিসিও সারি। তার মতে অনুশীলনে দুজনের একসাথে হয়ে থাকা তাদের মাঠের পারফরম্যান্সেও প্রভাব ফেলছে। ফলে লাভবান হচ্ছে জুভেন্তাস। যদিও ফুটবল ফেরার পর থেকে লিগে এখনও তেমন কোনও শক্তিশালী প্রতিপক্ষের মুখোমুখি হতে হয়নি জুভেন্তাসকে। কিন্তু কোপা ইতালিয়া সেমিতে ও ফাইনালে ভালো দলগুলির বিরুদ্ধে জুভে যে পারফরম্যান্স দেখিয়েছে তার ভিত্তিতে লিগ শীর্ষে থাকা সত্ত্বেও খুব একটা নিশ্চিন্তে থাকতে পারছেন না জুভে ভক্তরা। 

আরও পড়ুনঃবর্তমানে বিশ্বের সব থেকে 'সেক্সিয়েস্ট অ্যাথলিট', জানুন আলিশা স্মিডের কাহিনি

জুভে হেডস্যারের মতে ঠিক সময়ে ফর্মে ফিরেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো এবং পাওলো দিবালা দুজনেই। এখনও লিগে এসি মিলান, আটালান্টা, লাৎজিও, রোমা-র মতো শক্তিশালী দলগুলির বিরুদ্ধে খেলা বাকি তার। ফলে আপাতত লাৎজিওর থেকে চার পয়েন্টে এগিয়ে থাকলেও বেশি নিশ্চিন্ত হওয়ার সুযোগ নেই জুভেন্তাসের সামনে। এই মরশুমে লাৎজিওর কাছে দু-বার হারতে হয়েছে জুভেন্তাসকে। তাছাড়া দুর্দান্ত ফর্মে রয়েছে আটালান্টাও। ফলে রোনাল্ডো-দিবালা জুটির সামনে এখনও অনেক বড় লড়াই বাকি। সেই দলগুলিকে সামলাতে রোনাল্ডো এবং পাওলো দিবালার ফর্মে থাকা অত্যন্ত জরুরি বলে মনে করছেন মৌরিসিও সারিও। এই অবস্থায় ডগলাস কোস্তা ও ফ্রেডরিকো বার্নারদেশচীর সাম্প্রতিক ফর্মও খানিকটা স্বস্তি দিচ্ছে তাকে। 

আরও পড়ুনঃগ্রেগ চ্যাপেল ছাড়াও এক অজি কোচ সৌরভকে অধিনায়কত্ব থেকে সরাতে চেয়েছিলেন,সামনে এল বিস্ফোরক তথ্য

আরও পড়ুনঃউপযুক্ত প্রমাণের অভাবে ২০১১ বিশ্বকাপে গড়াপেটার তদন্ত বন্ধ করল শ্রীলঙ্কা সরকার

এই দলগুলির বিরুদ্ধে নামার আগে রবিবার জুভেন্তাসের সামনে থাকছে তোরিনো চ্যালেঞ্জ। তুরিন ডার্বিতে জিতেই মিলানের মুখোমুখি হতে চান কোচ মৌরিসিও সারি। যদিও এবারের লিগে তোরিনো রয়েছে লিগ টেবিলের নিচের সারিতে। তাও অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসী হয়ে মাঠে নামতে নারাজ রোনাল্ডোরা। এই ম্যাচের পর থেকেই লিগের শক্তিশালী দলগুলির বিরুদ্ধে পরপর ম্যাচ রয়েছে জুভের। তাই তুরিন ডার্বি থেকে পুরো পয়েন্ট নিশ্চিত করতে চায় জুভেন্তাস। এই ম্যাচে রোনাল্ডো-দিবালা জুটির সামনে সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ক্লান্তি। ফুটবল ফেরার পর থেকে টানা খেলে যাচ্ছে জুভেন্তাস। সেই ধকল সামলে পরের ম্যাচে রোনাল্ডোদের পক্ষে জ্বলে ওঠা কতটা সম্ভব তা সময়ই বলবে।