জয়ে ফিরলো ট‍ট‍্যেনহ‍্যাম হটস্পার। লকডাউনের পর কখনও ড্র আবার কখনও বা ম্যাচ হেরে বার বার করে পয়েন্ট নষ্ট করছিল জোসে মৌরিনহোর ছেলেরা। সোমবার রাতে তারা খেলতে নেমেছিল কার্লো আন্সেলোত্তির এভার্টনের বিরুদ্ধে। যারা লকডাউন ফেরার পর থেকে লিভারপুল, লেস্টারের মতো দলের বিরুদ্ধে ম্যাচ খেলেও অপরাজিত ছিল। লিভারপুলের সাথে গোলশূন্য ড্র এবং লেস্টার সিটি কে ২-১ ফলে হারায় তারা। কিন্তু সোমবার রাতে বাজি মারে স্পার্সরাই। ১-০ গোলে কার্লোর দলকে হারায় জোসের স্পার্সরা। 

আরও পড়ুনঃআজ ৩৯ তম জন্মদিন ধোনির, বিশেষ শুভেচ্ছা বার্তা বিসিসিআই ও চেন্নাই সুপার কিংসের

এই জয়ের ফলে প্রিমিয়ার লিগে ম্যানেজার হিসাবে নিজের ২০০ তম ম্যাচ জিতলেন জোসে মৌরিনহো। তিনি জানিয়েছেন পৃথিবীতে খুব বেশি এমন ম্যানেজার নেই যারা ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের তিনটে বড় ক্লাবে কোচিং করিয়েছেন। এই মাইলফলকে পৌঁছে তিনি খুশি। ৩২৬ টি ম্যাচে এই নজির গড়েন তিনি। তার চেয়ে দ্রুত এই নজিরে পৌঁছনো একমাত্র ম্যানেজার হলেন কিংবদন্তি স্যার আলেক্স ফার্গুসন। চেলসিকে কোচিং করিয়ে তিনি জিতেছিলেন ১৪০ টি ম্যাচ, রেড ডেভিলসদের ৫০ টি ম্যাচে জয় এনে দিয়েছিলেন। এবার স্পার্সদের ১০ টি ম্যাচ জিতিয়ে নজির তৈরি করলেন যা খুব বেশি ফুটবল ম্যানেজারের নেই। 

আরও পড়ুনঃক্রিকেট,প্রিয় বান্ধবী থেকে খাদ্য, জন্মদিনে ধোনির অজানা কিছু তথ্য

আরও পড়ুনঃ'শুভ জন্মদিন স্বামী', জন্মদিনে ধোনিকে মিষ্টি শুভেচ্ছা বার্তা সাক্ষীর

ম্যাচের হাফ-টাইমে ঝামেলায় জড়িয়েছিলেন স্পার্সের গোলকিপার হুগো লরিস এবং উইঙ্গার হিউন মিন সন। বাকি সতীর্থরা তাদের আলাদা করে। পরে অবশ্য সব মিটমাটও হয়ে যায় তাদের মধ্যে। শোনা যায় এভার্টন ডিফেন্ডার ইয়েরি মিনা-র দৌড় কে আটকানোর চেষ্টা না করায় সনের ওপর ক্ষুব্ধ হন লরিস। ম্যাচ জিতে অবশ্য একে অপরকে জড়িয়ে ধরেন তারা। মৌরিনহো কে ব্যাপারটি নিয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি ঘটনাটিকে সুন্দর আখ্যা দেন। তিনি বলেন তার খেলোয়াড়রা খেলাকে এত গুরুত্ব দিচ্ছে তিনি সন্তুষ্ট।