মাত্র ২৫ টাকা খরচ করে এক ক্লিকে বাড়িতে বসে পেয়ে যাবেন দূর্গা পুজোর ভোগ, জানুন কীভাবে

First Published 20, Oct 2020, 12:47 PM

করোনা ভাইরাসের কোপ, কীভাবে সম্ভব চলতি বছরের উৎসব তা ভেবে কোনও কূল কিনারাই যেন খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। কিন্তু পুজো বলে কথা, আয়োজন ছোট হোক বা বড়, তা তো বন্ধ থাকতে পারে না। প্যান্ডেল হপিং থেকে শুরু করে আড্ডা, সবই ভারচ্যুয়াল মিট, কিন্তু মায়ের ভোগ, তা কীভাবে পৌঁচ্ছবে ভক্তদের পাতে!

<p>বছরে একবার মায়ের পুজো। সেই আরাধণার জন্যেই অপেক্ষায় থাকা একটা বছর। কিন্তু ঠিক কীভাবে সেই পুজোয় সামিল হওয়া সম্ভব এখনো স্পষ্ট নয়। পুস্পাঞ্জলি থেকে শুরু করে প্রসাদ বিতরণ, সবই চলতি বছরে বাতিলের খাতায়।</p>

বছরে একবার মায়ের পুজো। সেই আরাধণার জন্যেই অপেক্ষায় থাকা একটা বছর। কিন্তু ঠিক কীভাবে সেই পুজোয় সামিল হওয়া সম্ভব এখনো স্পষ্ট নয়। পুস্পাঞ্জলি থেকে শুরু করে প্রসাদ বিতরণ, সবই চলতি বছরে বাতিলের খাতায়।

<p>এমন পরিস্থিতিতে মায়ের একটু ভোগের জন্য অনেকেরই মনে জেগেছে প্রশ্ন। অনেকে আবার কেবল ভোজন রসিক বলেই পাত পেড়ে এই ভোগ খাওয়ার অপেক্ষায় দিন গোনেন। এবার সকলের কাছেই এই ভোগ পৌঁচ্ছে দেওয়ার জন্য এল নতুন অ্যাপ।&nbsp;</p>

এমন পরিস্থিতিতে মায়ের একটু ভোগের জন্য অনেকেরই মনে জেগেছে প্রশ্ন। অনেকে আবার কেবল ভোজন রসিক বলেই পাত পেড়ে এই ভোগ খাওয়ার অপেক্ষায় দিন গোনেন। এবার সকলের কাছেই এই ভোগ পৌঁচ্ছে দেওয়ার জন্য এল নতুন অ্যাপ। 

<p>দেব দত্ত নামে এক ব্যাক্তি অতিমারীর সময় Yotto.in নামে একটি অ্যাপ তৈরি করেন। যার মাধ্যমে সকলকে এই দুর্দিনে প্রয়োজনীয় জিনিস পৌঁচ্ছে দেওয়া হয়েছিল।&nbsp;</p>

দেব দত্ত নামে এক ব্যাক্তি অতিমারীর সময় Yotto.in নামে একটি অ্যাপ তৈরি করেন। যার মাধ্যমে সকলকে এই দুর্দিনে প্রয়োজনীয় জিনিস পৌঁচ্ছে দেওয়া হয়েছিল। 

<p>পুজোর মরসুমে সেই অ্যাপই এখন বদলে ফেলল চেনা লুক। এবার সকলের দরজায় দরজায় ভোগ পৌঁচ্ছে দেওয়ার প্রসায় নিল এই অ্যাপ। যেখানে আবেদন করলেই মিলবে ভোগ।&nbsp;</p>

পুজোর মরসুমে সেই অ্যাপই এখন বদলে ফেলল চেনা লুক। এবার সকলের দরজায় দরজায় ভোগ পৌঁচ্ছে দেওয়ার প্রসায় নিল এই অ্যাপ। যেখানে আবেদন করলেই মিলবে ভোগ। 

<p>পরিবর্তে দিতে হবে কেবলই ২৫ টাকা। যা ডেলিভারি চার্জ হিসেবে তারা নিয়ে থাকবেন। ইতিমধ্যেই ২০-র বেশি পুজো কমিটি এন্ট্রি করিয়েছে এই অ্যাপে।&nbsp;</p>

পরিবর্তে দিতে হবে কেবলই ২৫ টাকা। যা ডেলিভারি চার্জ হিসেবে তারা নিয়ে থাকবেন। ইতিমধ্যেই ২০-র বেশি পুজো কমিটি এন্ট্রি করিয়েছে এই অ্যাপে। 

<p>দক্ষিণ থেকে উত্তর কলকাতা, দক্ষিণ ২৪ পরগনাতে যদি আপনি থেকে থাকেন, তবে এই অ্যাপে গিয়ে আপনি ভোগের অগ্রিম বুকিং করতে পারেন।&nbsp;</p>

দক্ষিণ থেকে উত্তর কলকাতা, দক্ষিণ ২৪ পরগনাতে যদি আপনি থেকে থাকেন, তবে এই অ্যাপে গিয়ে আপনি ভোগের অগ্রিম বুকিং করতে পারেন। 

<p>১৯ অক্টোবর থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছে এই বুকিং। এক সংবাদ মাধ্যমকে দেব জানান, কাছের পুজো মণ্ডপ থেকেই পৌঁচ্ছে দেওয়া হবে এই ভোগ।&nbsp;</p>

১৯ অক্টোবর থেকেই শুরু হয়ে গিয়েছে এই বুকিং। এক সংবাদ মাধ্যমকে দেব জানান, কাছের পুজো মণ্ডপ থেকেই পৌঁচ্ছে দেওয়া হবে এই ভোগ।