110

আধুনিক জীবনযাত্রায় মানিয়ে নিতে গিয়ে একাধিক রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন অনেকে। বর্তমান জীবনযাত্রা আর খাদ্যাভ্যাসের জন্য নানা রকম রোগ দেখা দিচ্ছে। এই সবের মধ্যে একটি হল পিরিয়ডস সংক্রান্ত সমস্যা। ছোট বয়স থেকেই মেয়েরা এই সমস্যায় ভুগছেন। এর থেকে মুক্তি পেতে নিয়মিত এক্সারসাইজ করুন। আজ রইল পাঁচটি আসনের হদিশ। 

210

করতে পারেন অধোমুখশ্বানাসন। এক্ষেত্রে প্রথমে হাঁটু গেড়ে বসুন। এবার হাত রাখুন মেঝেতে। কোমড়ের অংশ ওপর দিয়ে তুলে মাথা মাটিতে ঠেকানোর চেষ্টা করুন। অথাবা সোজা হয়ে দাঁড়ান। এবার নিডের দিকে ঝুঁকে হাত মাটিতে ঠেকান। হাত ও পায়ের মাঝে এক থেকে দেড় ফুট দূরত্হব রাখুন। মাথা নিচের দিকে ঝুঁকিয়ে রাখুন। কয়েক সেকেন্ড থেকে আবার আগের অবস্থায় ফিরে যান। 

310

উষ্ট্রাসন করলে পিরিয়ডস জনিত সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। এক্ষেত্রে প্রথমে মেঝেতে হাঁটু গেড়ে বসুন। এবার শরীরের ওপরের অংশ তুলে নিন। হাত পিছনের দিকে ঝুঁকিয়ে পায়ের গোড়ালিতে স্পর্শ করুন। এভাবে আস্তে আস্তে পেট সামনের দিকে এগিয়ে দিন। কয়েক সেকেন্ড থেকে আবার আগের অবস্থায় ফিরে যান। 

410

করতে পারেন ধনুরাসন। প্রথমে মাটিতে উপুড় হয়ে শুয়ে পড়ুন। এবার পা দুটি হাঁটুর কাছ থেকে ভাঁজ করুন। গোড়ালি দুটি জোড়া ভাবে নিতম্বের কাছে নিয়ে আনুন। এভাবে দুহাত দিয়ে পায়ের গোছ শক্ত করে ধুন। এই সময় তলপেট যেন নমাটিতে থাকে। কয়েক সেকেন্ড থেকে আবার আগের অবস্থায় ফিরে যান। পিরিয়ডস সংক্রান্ত সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন। 

510

পিরিয়ডস সংক্রান্ত সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন মালাসনের গুণে। প্রথমে সোজা হয়ে মাটিতে শুয়ে পড়ুন। শ্বাস প্রশ্বাস স্বাভাবিক রেখে প্রথমে ডান পায়ের হাঁটু ভাঁজ করে বুকের কাছে এনে দু হাত দিয়ে চেপে ধরুন। হাঁটু বুকে ও পেটের সংস্পর্শে থাকবে। এই ভঙ্গিমাতে কিছুক্ষণ থাকুন। আবার আগের অবস্থায় ফিরে যান। উপকৃত হবেন। 

610

পিরিয়ডস সংক্রান্ত সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে করতে পারেন মৎস্যাসন। পদ্মাসনের ভঙ্গিতে দুটি কনুইয়ের সাহায্যে চিত হয়ে শুয়ে পড়ুন। এবার হাত দুটি মাথার দিপাশে মাটিতে রেখে তার ওপর ভর দিয়ে পিঠ মাটি থেকে তুলুন। ঘাড় হেলিয়ে দিয়ে মাথার তালু মাটির ওপর রাখুন। এবার দুহাত দিয়ে দু পায়ের বুড়ো আঙুল ধরে টানুন আর বুক উঁচু করুন। 

710

এই সকল আসন নিয়মিত করতে পিরিয়ডস সংক্রান্ত সকল সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন। এছাড়াও পেট ব্যথার সময় মেনে চলতে পারেন কিছু ঘরোয়া টোটকা। যেমন পেট ব্যথা হলে গরম সেঁক দিন। চেষ্টা করুন যতটা পারবেন ওষুধ না খেতে। হট ওয়াটার ব্যগের সাহয্যে সেঁক দিন। এতে পেটের সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। 

810

সঙ্গে খান ভিটামিন যুক্ত খাবার। খারার খাদ্যাভ্যাসের জন্য পিরিয়ডস জনিত একাধিক সমস্যা দেখা দেয়। রোজ সবুজ সবজি, ডিম, চিনা বাদাম, পেস্তা বাদাম, বাঁধাকপির মতো খাবার খেতে পারেন। এতে পেশি সংকোচন জনিত পিরিয়ডস সংক্রান্ত সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। সারা মাস মেনে চলুন এই নিয়ম। এতে শরীর সুস্থ থাকবে। 

910

পেটের ব্যথা হলে মাসাজ করতে পাকেন তলপেটে কয়েক ফোঁটা ল্যাভেন্জার তেল দিন। তারপর হালকা করে মাসাজ করুন। এতে পেটের ব্যথা মুহূর্তে উপসম হবে। পিরিয়ডসের কজিন পেশি ব্যথা হলে এই টোটকা মেনে চলুন। ওষুধ ছাড়া সমস্যা কমাতে এটা বেশ উপকারী। সঙ্গে প্রচুর পরিমাণে জল খান। 

1010

দারুচিনির ব্যবহারে পেটের ব্যথা থেকে মুক্তি পেতে পারেন। এক গ্লাস গরম জলে দারুচিনি গুঁড়ো দিয়ে ভালো করে মেশান। তারপর তাতে মধু মিশিয়ে নিন। মিশ্রণটি গরম গরম পান করুন। এতে সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন। তবে, মাসিক জনিত যে কোনও সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে নিয়মিত ব্যায়াম করুন। সঙ্গে বদল আনুন জীবনযাত্রায়।