15

গলা ব্যাথা শুরু হলে গরম জলে সামান্য নুন দিয়ে কুলকুচি করুন। নুন-জল টনসিলের সংক্রমণ রোধ করে ব্যথা কমতে সাহায্য করে। শুধু তাই নয়, উষ্ণ গরম জল দিয়ে কুলকুচি করলে ব্যাকটেরিয়া সংক্রমণের আশঙ্কাও অনেক কমে যায়।

Subscribe to get breaking news alerts

25


এক কাপ গরম জলে আধ চামচ চা পাতা, এক চামচ মধু দিয়ে ১০ মিনিট ফুটিয়ে নিন। হালকা উষ্ণ অবস্থায় ধীরে ধীরে ওই চা পান করুন। চা-এর মধ্যে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমস্ত ক্ষতিকর জীবাণু ধ্বংস করে দেয়। দিনে কয়েকবার এই চা পান করলে অনেকটা আরাম পাবেন।

35


এক কাপ গরম জলে আধ চামচ চা পাতা, এক চামচ মধু দিয়ে ১০ মিনিট ফুটিয়ে নিন। হালকা উষ্ণ অবস্থায় ধীরে ধীরে ওই চা পান করুন। চা-এর মধ্যে থাকা অ্যান্টি অক্সিডেন্ট সমস্ত ক্ষতিকর জীবাণু ধ্বংস করে দেয়। দিনে কয়েকবার এই চা পান করলে অনেকটা আরাম পাবেন।

45


দেড় কাপ জলে কিছুটা পরিমাণ আদা কুচি দিয়ে ভাল করে ফুটিয়ে নিন। দিনে অন্তত ২-৩ বার এই আদা জল পান করুন। আদার মধ্যে থাকা অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান সংক্রমণে বাঁধা দেয়। এর সঙ্গে গলার ব্যথাও ধীরে ধীরে কমে যায়।

55


গরম জলের মধ্যে লেবু, মধু, নুন দিয়ে ভাল করে ফুটিয়ে নিন। যতদিন পর্যন্ত গলা ব্যথা থাকবে ততদিন অবধি এই মিশ্রণটি পান করুন। টনলিলের সমস্যার জন্য এটি খুব কার্যকরী।