17

এই সহজ ঘরোয়া পদ্ধতিটি হল দুধের সঙ্গে ঘি মিশিয়ে পান। এই নিয়ম মেনে দুধ পান করলে ঘুমের সমস্যা দূর হয়। এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাও শক্তিশালী করে তোলে। 

Subscribe to get breaking news alerts

27

শরীরকে সুস্থ ও সবল রাখতে আয়ুর্বেদে ঘিকে অত্যন্ত গুরুত্ব দেওয়া হয়। রাতে ঘুমানোর সময় গরম দুধে এক চামচ ঘি মিশিয়ে খেলে শরীরে খুব ইতিবাচক প্রভাব পড়ে। জেনে নিন এর অন্যান্য উপকারিতা।

37

জয়েন্টে ব্যাথা হলে অবশ্যই ঘি ও দুধ খান। এই ধরনের দুধ জয়েন্ট পেইন কমায় এবং আরাম দেয়। এই দুধে হাড়ও মজবুত হয়। এই দুধ পান করলে জয়েন্টের ব্যথা উপশম হয়।
 

47

রাতে ঘুমানোর আগে এক কাপ গরম দুধে ঘি মিশিয়ে পান করলে তা আমাদের মস্তিষ্কের স্নায়ুকে শান্ত করে। এভাবে দুধ পান করলে আপনি অনেক আরাম পাবেন এবং ভালো ঘুম হতে সাহায্য করবে। ঘি খেলে মানসিক চাপ কমে এবং মেজাজও ভালো থাকে।

57

 দুধে ঘি দিয়ে খেলে শরীরে এনজাইম নিঃসৃত হয়, যা হজম শক্তি বাড়ায়। এই এনজাইমগুলি ভাল হজম হতে সাহায্য করে এবং পেটের সমস্যা শেষ হতে শুরু করে।

67

স্বাস্থ্যকর ও উজ্জ্বল ত্বকের জন্য ঘি মিশিয়ে দুধ পান করুন। এটি আমাদের ত্বকের অনেক উপকার করে। ঘি এবং দুধ উভয়ই প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার যা ত্বককে স্বাভাবিকভাবে পুষ্টি ও ময়শ্চারাইজ করতে কাজ করে। প্রতিদিন দুধে ঘি খেলে বার্ধক্য কমে যায় এবং শুষ্কতাও চলে যায়।
 

77

এক গ্লাস দুধে ঘি খেলে হজমে দারুণ প্রভাব পড়ে। এটি মেটাবলিজম বাড়ায় এবং হজম প্রক্রিয়া ভালো রাখে। পেটে গ্যাস তৈরি থেকে শুরু করে মুখে ফোসকা হওয়া পর্যন্ত সমস্যার সমাধান করে।