কোভিডের জেরে যতো সময় এগোচ্ছে ততই বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্য়া। এদিকে চিকিৎসকেরা জানিয়েছেন বেশিরভাগ মানুষই উপসর্গহীন কোভিডে আক্রান্ত। আর তাদেরকে চিকিৎসকেরা বাড়িতে থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন। তবে সবসময় আপডেট রাখতে হবে উপসর্গহীন সেই কোভিড আক্রান্তের শরীরে কতটা পরিমাণ অক্সিজেন প্রবেশ করছে। তাহলে কীকরে সেটা বাড়িতে জানা সম্ভব। আজ্ঞে হ্য়াঁ জানা সম্ভব বাড়িতেই ছোট্ট একটা যন্ত্র রেখে, যার নাম অক্সিমিটার। স্মার্ট বাঙালি থেকে ইতিমধ্যে যা কিনে বাজার প্রায় ফাঁকা করে ফেলেছেন।

আরও পড়ুন, কোভিড আক্রান্ত চিকিৎসকের মৃত্যুতে প্রায় ১৯ লাখ বিল মেডিকার, রিভিউ-র নির্দেশ কমিশনের


প্রসঙ্গত কলকাতায়  এখনও পর্যন্ত  করোনা নিয়ে মৃত্যু হয়েছে ৯৯৯ জনের। অন্তত তেমনটাই বলছে রাজ্য়ের স্বাস্থ্য় বুলেটিন।পরিসংখ্য়ান বলছে, পশ্চিমবঙ্গে বর্তমানে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১,০৪,৩২৬ জন। এখনও  করোনা অ্যাক্টিভের  সংখ্যা ২৬,০০৩ জন৷  অপরদিকে দিল্লিতে এখন অ্যাকটিভ করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা ১০,০০০-এর কাছাকাছি। বাড়িতেই আইসোলেশনে রয়েছেন প্রায় ৫,০০০ রোগী। যাঁরা বাড়িতে রয়েছেন তাঁদের শরীরের অক্সিজেনের মাত্রার দিকে নজর রাখতে পরামর্শ দিয়েছেন এইমস চিকিৎসকরা। এ জন্য বাড়িতে অক্সিমিটার রাখা জরুরি।

আরও পড়ুন, ডিসানের বিরুদ্ধে মামলা করল কমিশন, ভর্তি না নেওয়ায় কোভিড রোগীর মৃত্যুতে নড়ে বসল স্বাস্থ্য দফতর

অক্সিমিটার একটি ছোট যন্ত্র, যার মাধ্যমে সহজেই রোগীর শরীরের অক্সিজেনের মাত্রা জানতে পারা যায়।এটি রোগীর আঙুল বা কানে আটকে দেওয়া হয়। যদি অক্সিমিটারে এসপিও২ ৯৫-এর কম দেখায় তবে শরীরে অক্সিজেনের মাত্রা অত্যন্ত কম আর তা স্বাভাবিক নয়। আর যদি  এসপিও২ ৯৩-র দেখায় তবে শ্বাসপ্রশ্বাসে অসুবিধে না থাকলেও চিকিৎসকের কাছে দ্রুত যাওয়া উচিত।

 

    

 

কোভিড রোগী ভর্তিতে ৫০ হাজার টাকার বেশি নেওয়া যাবে না, নয়া নির্দেশিকা জারি রাজ্যের

ভয় নেই করোনায়, মেডিক্য়ালের ৪ তলার কার্নিশে পা দোলাচ্ছে রোগী

ভুয়ো টেস্টের ফাঁদে পড়ে করোনায় মৃত্যু এক ব্য়াক্তির, গ্রেফতার প্রতারণা চক্রের ৩ জন

করোনায় ফের ১ এসবিআই কর্মীর মৃত্য়ু, মৃতের পরিবারকে চাকরি দেওযার দাবিতে ব্যাঙ্ক কর্মীরা

   পূর্ব ভারতের প্রথম সরকারি প্লাজমা ব্যাঙ্ক-কলকাতা মেডিকেল, করোনা রুখতে প্রস্তুতি তুঙ্গে