আগামী দিনে ব্যপক হারে বাড়তে চলেছে পেট্রল ও ডিজেলের দাম। সম্প্রতি প্রকাশিত একটি রিপোর্টের ভিত্তিতে জানা গিয়েছে, প্রতি লিটারে পাঁচ থেকে ছয় টাকা পর্যন্ত বাড়তে পারে পেট্রল ও ডিজেলের দাম। আর সেই নিয়েই আশঙ্কায় দিন গুনছেন অর্থনীতিবিদরা। কারণ এইভাবে যদি পেট্রল- ডিজেলের দাম বাড়তে থাকে তাহলে তার প্রভাব পড়বে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের ওপর। 

কিন্তু কেন এই মুল্যবৃদ্ধির আশঙ্কা? বিশ্বের বৃহত্তম তৈল প্রক্রিয়াকরণজাক কেন্দ্র সৌদি আরবের আরমকো-তে গত সপ্তাহে ড্রোন হামলা চালানো হয়েছে বলে খবর। আর তার প্রভাবেই ভারতে পেট্রল- ডিডেলের দাম লাফিয়ে বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে বলে খবর। সম্প্রতি প্রকাশিত রিপোর্টে এমনটাই বলা হয়েছে। 

সম্প্রতি দুটি সর্বভারতীয় বাণিজ্যিক সংবাদ মাধ্যমের তরফে দাবি করা হয়েছে যে পেট্রল- ডিজেলের দাম লিটার প্রতি পাঁচ থেকে ছয় টাকা করে বাড়তে পারে। এই প্রসঙ্গে হিন্দুস্থান পেট্রোলিয়াম কর্পোরেশন লিমিটেড-এর চেয়ারম্যান এম কে সুরানা জানিয়েছেন, যদি অপরিশোধিত তেলের দাম দশ শতাংশ হারে বাড়তে থাকে তাহলে জ্বালানি খাতে পণ্যের দামের ওপর এর প্রভাব পড়বে। 

আরও পড়ুন- ৬৯ বছরে পা মোদীর, জন্মদিনের প্রাক্কালে ৬৯ ফুট লম্বা কেক কাটল হিন্দু সংগঠন

আরও পড়ুন- মঙ্গলবার জন্মদিন নরেন্দ্র মোদীর, আসানসোলের মন্দিরে পুজো দিয়ে গেলেন যশোদা বেন

আরও পড়ুন- দুর্নীতির বোঝা মাথায় নিয়েই কি আত্মঘাতী, অন্ধ্রপ্রদেশের প্রাক্তন বিধানসভা অধ্যক্ষের মৃত্যুতে উঠছে প্রশ্ন

আরও পড়ুন- মায়ের আশীর্বাদ নিয়েই দিন শুরু, জন্মদিনে 'নমামি নর্মদা মহোৎসব'এর উদ্বোধনে নরেন্দ্র মোদী

প্রসঙ্গত, ভারতের জ্বালানি বিপণন সংস্থাগুলি রিটেল আউটলেটের পেট্রল ও ডিজেলের দাম নির্ধারণ করে মধ্যপ্রাচ্যে শেষ পনের দিনের গড় বেঞ্চমার্ক দামের ভিত্তিতে। রবিবার পর্যন্ত দেশের চারটি মেট্রো শহরে লিটার প্রতি ছয় থেকে সাত টাকা হারে বেড়েছে পেট্রলের দাম। প্রতি লিটারে ছয় পয়সা দাম বেড়েছে ডিজেলের। তবে রিপোর্টের ভিত্তিতে যদি আরও দাম বাড়তে থাকে তাহলে তার প্রভাব যে নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিসের ওপরেও পড়বে সেকথা বলাই যায়।