২৪ ফেব্রুয়ারি আহমেদাবাদের কর্মসূচি সেরে সপরিবারে আগ্রায় পৌঁছবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর তাজমহলের শহরে তিনি পা রাখতে না রাখতেই নগর প্রশাসন তাঁর হাতে তুলে দেবে ৬০০ গ্রাম ওজনের একটি রূপোর চাবি। আগ্রার মেয়র নবীন জৈন বলেছেন, এটা শহরের অতিথি অভ্যর্থনা একটা বিশেষ প্রথা। এর পিছনে একটা বিশেষ কারণ রয়েছে।

কি সেই কারণ? নবীন জৈন জানিয়েছেন আগ্রায় দীর্ঘদিন ধরে এই প্রথা চলে আসছে। এর মধ্য দিয়ে অতিথিদের বার্তা দেওয়া হয় যে শহরের সব দরজার তালা খুলে তাঁকে সমগ্র আগ্রা স্বাগত জানাচ্ছে।

আরও পড়ুন - বুশের পাতে পড়েছিল বিরিয়ানি, ওবামার পাতে কাবাব, ট্রাম্পের মেনুতে কী থাকবে

২৪ ফেব্রুয়ারি দুপুরের দিকে আহমেদাবাদ পৌঁছবেন ট্রাম্প। সঙ্গে থাকবেন মার্কিন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প, প্রেসিডেন্টের মেয়ে ইভাঙ্কা ট্রাম্প, জামাই জ্যারেড কুশনার এবং বেশ কয়েকজন শীর্ষ মার্কিন কর্মকর্তা-সহ উচ্চ পর্যায়ের একটি প্রতিনিধি দল। তাঁরা প্রথমে গুজরাটের রাজধানীতে সবরমতি আশ্রম ঘুরে মোতেরা স্টেডিয়ামে একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেবেন। তারপরই চলে আসবেন আগ্রায়।

আরও পড়ুন - অতিথি তালিকা থেকে বাদ গেল কেজরিওয়ালের নাম, একাই 'হ্যাপিনেস ক্লাস' করবেন মেলানিয়া

আগ্রায়, মার্কিন প্রেসিডেন্ট  তাজমহল পরিদর্শন করবেন। তবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী আগ্রায় তাঁর সফরসঙ্গী হবেন না বলেই শোনা যাচ্ছে। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরসূত্রে জানা গিয়েছে আহমেদাবাদ থেকেই মোদী সোজা দিল্লি চলে আসবেন। আর, মার্কিন রাষ্ট্রপতি এবং তার পরিবারের সদস্যদের নিয়ে আগ্রায় তাজমহল দেখতে যাবেন।

আরও পড়ুন - মে-জামাই'ও ট্রাম্পের সফরসঙ্গী, বিপুল খরচের অনুষ্ঠানের আয়োজক নিয়ে ঘনাচ্ছে রহস্য

তার জন্য এখন তাজমহলে পুরোদমে প্রস্তুতি চলছে। মুঘল সম্রাট শাহজাহান এবং মুমতাজ মহল-এর সমাধিক্ষেত্রগুলি নতুন করে সাজিয়ে তোলা হচ্ছে। ভারতের প্রত্নতাত্ত্বিক সমীক্ষা বা এএসআই শাহজাহান এবং তাঁর বেগমের সমাধিতে 'মাড থেরাপি' করছে। ৩৬৮ বছর আগে দু'জনকে সমাহিত করা হয়েছিল। তারপর এই প্রথমবার তাঁদের সমাধিগূহটি পরিষ্কার করা হচ্ছে। তবে এই সমাধিগুলি শাহজাহান ও মুমতাজ-এর আসল কবর নয়, তার প্রতিরূপ মাত্র। আসল কবর এই সমমাধিগৃহটির নিচে একটি কক্ষে রয়েছে।