কচ্ছ উপকূলে স্যার ক্রিকে কিছু পরিত্যক্ত নৌকো পড়ে থাকার ঘটনা ঘটেছিল। পরিত্যক্ত নৌকোগুলি দেখে তল্লাসি অভিযান চালায় সেনারা। যদিও সেবার সেইরকম সন্দেহজনক কিছুই পাওয়া যায়নি। তবে এবার উপত্যকার পাশাপাশা দক্ষিণ ভারতেও একটা বড় ধরণের জঙ্গি হানার আশঙ্কা রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

সাদার্ন কমান্ডের জেনারেল অফিসার কমান্ডিং ইন চিফ লেফটেন্যান্ট এসকে সাইনি জানিয়েছেন তাঁদের কাছে আসা ইনপুট এবং হুমকির ভিত্তিতে তাঁদের ধারণা যে-কোনও সময়েই জঙ্গিহানার ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা রয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে। তিনি আরও জানান যে, তাঁদের কাছে এমন অনেক তথ্য রয়েছে যাতে ভারতের দক্ষিণাঞ্চল এবং উপদ্বীপ এলাকায় সন্ত্রাসবাদী হামলা ঘটতে পারে। 

সেনাবাহিনীর তরফে আরও জানানো হয়েছে, সন্ত্রাসবাদী কার্যকলপে তারা যাতে কোনওভাবে সাফল্য না পেতে পারে সেই দিকেই লক্ষ্য রাখছে তারা। গুজরাত উপকূলে সন্দেহজনক নৌকোর উপস্থিতির পর থেকেই প্রতিবেশি রাষ্ট্রের তরফে জঙ্গি হামলা হতে পারে এমনটাই সন্দেহ দানা বেঁধেছিল তাঁদের মনে। আর তারপর একাধিক হুমকির বার্তা পেয়ে বিষয়টি তাঁদের কাছে ভীষণরকম স্পষ্ট হয়ে ওঠে। 

নজির গড়ল ভারতীয় সেনা, বিশ্বের অষ্টম সর্বোচ্চ পাস-এ পা রাখল আট সদস্যের দল

মধ্যবিত্তের জন্য ফের ধাক্কা, ফিক্সড ডিপোজিটে সুদের হার কমাল স্টেট ব্যাঙ্ক

লুঙ্গি-গেঞ্জি পরলে ২০০০ টাকা জরিমানা যোগী রাজ্যে, ট্রাক চালকদের জন্য জারি পোশাক বিধি

ক্যারিব্যাগ কিনতে বাধ্য করা হল ক্রেতাকে, জনপ্রিয় রিটেল চেইনকে জরিমানা ক্রেতা সুরক্ষা দফতরের

লেফটেন্যান্ট আরও বলেন, সরকারের তরফ থেকে রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামাজিক এবং কূটনৈতিক যাবতীয় বিষয়ে তৈরি হওয়া দ্বন্দ্বের অবসানে গুরুত্বপূর্ণ ভুমিকা পালন করছে  এবং সেনাবাহিনী সরকারের সেই পদক্ষেপই কার্যকর করার জন্য এগিয়ে গিয়েছে। তাঁদের তরফে আরও জানানো হয়েছে উপত্যকার পাশাপাশি সীমান্তবর্তী যেকোনও এলাকায় যেকোনও পরিস্থিতির জন্য সেনাবাহিনী প্রস্তুত।