Asianet News BanglaAsianet News Bangla

ভারতের মাটিতে তৈরি আস্ত একটা চিনা গ্রাম! এবার শিলিগুড়ি করিডোরে নজর বেজিংয়ের

মহাকাশ প্রযুক্তির ওপর ফোকাস করা কোম্পানি MAXAR এই ছবিগুলি তুলেছে। জাতীয় সংবাদমাধ্যমে স্বাভাবিকভাবেই ছড়িয়ে পড়েছে ছবিগুলি।  প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে গ্রামটি কার্যত প্রতিটি বাড়ির দোরগোড়ায় পার্ক করা গাড়ি নিয়ে সম্পূর্ণভাবে জনবসতিপূর্ণ।

China PLOTTING to enter India illegally? Has BUILT a whole village HERE bpsb
Author
Kolkata, First Published Jul 20, 2022, 5:07 PM IST

২০শে জুলাই প্রকাশিত নয়া উপগ্রহ চিত্রে চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ্যে। দেখা গিয়েছে ভুটানের দিকে ডোকলাম মালভূমির পূর্ব দিকে একটি চিনা গ্রাম নির্মাণ করা হয়েছে। উল্লেখ্য, এই অঞ্চল ভারতের কৌশলগত স্বার্থের জন্য গুরুত্বপূর্ণ বলে বিবেচিত হয়। এই অঞ্চলটি চিন তার নিজের বলে দাবি করেছে। সেখানে একটি রাস্তা তৈরির চেষ্টা করার পরে ডোকলাম ট্রাই জাংশনে ভারত ও চিনা সেনা মুখোমুখি দাঁড়িয়ে ছিল প্রায় ৭৩ দিন ধরে। 

মহাকাশ প্রযুক্তির ওপর ফোকাস করা কোম্পানি MAXAR এই ছবিগুলি তুলেছে। জাতীয় সংবাদমাধ্যমে স্বাভাবিকভাবেই ছড়িয়ে পড়েছে ছবিগুলি।  প্রতিবেদনে বলা হয়েছে যে গ্রামটি কার্যত প্রতিটি বাড়ির দোরগোড়ায় পার্ক করা গাড়ি নিয়ে সম্পূর্ণভাবে জনবসতিপূর্ণ। আরও জানা গিয়েছে গ্রামের পাশাপাশি একটি সুন্দরভাবে চিহ্নিত সমস্ত আবহাওয়ার ক্যারেজওয়ে তৈরি করা হয়েছে। 

যে নতুন রাস্তা নির্মাণ করা হয়েছে, সেটি চিনকে ডোকলাম মালভূমিতে একটি কৌশলগত রিজ পর্যন্ত প্রবেশাধিকার দিতে পারে। নতুন ছবি নিয়ে সেনাবাহিনীর পক্ষ থেকে তাৎক্ষণিক কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন মারফত খবর মিলেছে ম্যাক্সার থেকে পাওয়া নতুন স্যাটেলাইট ইমেজ ইঙ্গিত করে যে আমো চু নদী উপত্যকার একটি দ্বিতীয় গ্রামের নির্মাণ এখন কার্যত সম্পূর্ণ হয়েছে। এরই সঙ্গে চিন আরও দক্ষিণে একটি তৃতীয় গ্রাম বা বসতি নির্মাণের কাজ এগিয়ে নিয়েছে। 

China PLOTTING to enter India illegally? Has BUILT a whole village HERE bpsb

জানা গিয়েছে, এই উন্নয়নের অর্থ হল ভারতের সংবেদনশীল শিলিগুড়ি করিডোর, উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলিকে দেশের বাকি অংশের সাথে সংযুক্ত করে এমন এলাকায় চিনের সরাসরি নজরদারি করতে পারবে। কেন্দ্র সরকার আগে বলেছিল যে তারা তার সীমান্তে সমস্ত কার্যকলাপের উপর নজর রাখে। চিন পূর্ব লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা (এলএসি) সহ বেশ কয়েকটি সংবেদনশীল স্থানে সীমান্ত পরিকাঠামো তৈরি করছে যেখানে চিনা পিপলস লিবারেশন আর্মি ভারতীয় সেনাবাহিনীর সাথে দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে। 

দিন কয়েক আগেই চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং জিনজিয়াং প্রদেশে সফর করেন এবং তার সেনাদের সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। পিপলস লিবারেশন আর্মি বা পিএলএ এর জিনজিয়াং মিলিটারি কমান্ড ২০২০ সালের মে মাস থেকে চিনের তরফে এই এলাকায় নজরদারি করছে। দুই পক্ষের মধ্যে সামরিক অচলাবস্থার মধ্যে লাদাখ অঞ্চলে ভারত-চিন সীমান্তের তদারকি করে পিএলএ। তাই চিনা প্রেসিডেন্টের জিনজিয়াং প্রদেশ সফর তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করা হচ্ছে।

গত সপ্তাহে বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর এবং চিনের বিদেশমন্ত্রী ওয়াং ইয়ের মধ্যে বালিতে অনুষ্ঠিত আলোচনায় পূর্ব লাদাখ সম্পর্কিত বিরোধের বিষয়টি গুরুত্ব পেয়েছিল। G20 সম্মেলনের সাইডলাইনে বালিতে এক ঘন্টার বৈঠকে, জয়শঙ্কর পূর্ব লাদাখের সমস্ত মুলতুবি সমস্যাগুলির দ্রুত সমাধানের প্রয়োজনীয়তা ওয়াং ইকে জানিয়েছিলেন।

জয়শঙ্কর বলেছিলেন, দুই দেশের সম্পর্ক পারস্পরিক শ্রদ্ধা, পারস্পরিক সংবেদনশীলতা এবং পারস্পরিক স্বার্থের ভিত্তিতে হওয়া উচিত। কিছু সংঘর্ষের স্থান থেকে সেনা প্রত্যাহারের কথা উল্লেখ করে বিদেশমন্ত্রী এক বিবৃতিতে বলেছিলেন যে সীমান্ত এলাকায় শান্তি ও স্থিতিশীলতা পুনরুদ্ধারের জন্য অবশিষ্ট সমস্ত এলাকা থেকে সেনা প্রত্যাহারের প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। তা দ্রুত বাস্তবায়িত করা প্রয়োজন। 

ব্রা খুলতে বাধ্য করা হয়েছিল মেডিকেল পরীক্ষা NEET পরীক্ষার্থীদের, চোখে জল ছাত্রীদের

রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ক্রস ভোটিংএর অভিযোগ, দেখে নিন তালিকায় রয়েছে কোন দলের জনপ্রতিনিধিরা

কয়েক কোটি টাকা সম্পত্তির মালিক দ্রৌপদী মুর্মু, রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থীর ব্যক্তিগত জীবন মোটেও সুখের ছিল না

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios