Asianet News BanglaAsianet News Bangla

লাদাখ ছেড়ে এবার কি লাল ফৌজের নজর তাওয়াং-এ, বেড়েছে চিনা সেনা কর্তাদের বুটের আওয়াজ

ভারতীয় সেনা বাহিনীর নজরদারীর মাধ্যমে সংগ্রহ করা তথ্যে দেখাগেছে,  লুংরোলা, জিমিথাং আর বুমলা - এই তিনটি সেক্টরেই চিনা সেনার উপস্থিতি আগের তুলনায় অনেকটাই বেড়ে গেছে। 

Chinas PLA has increased patrols in  Tawang sector, and army officials are also coming BSM
Author
Kolkata, First Published Oct 26, 2021, 7:47 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

এবার কি অরুণাচল প্রদেশের তাওয়াং সেক্টরের (Tawang Sector) দিকে নজর দিয়েছে চিন (China)। সূত্রের খবর ২০২০-২১ সালের মধ্যে চিনের পিপিলস লিবারেশন আর্মি (PLA) টহল বাড়িয়েছে তাওয়াং সেক্টরে। সূত্রের খবর এই এলাকায় যাওয়া আসা বেড়েছে চিনের সেনা আধিকারিকদেরও। তাওয়াংএর তিনটি সেক্টর জুড়ে  গত এক বছর ধরেই চিন সক্রিয় হচ্ছে বলেও সূত্রের খবর। ভারতীয় সেনা বাহিনীর নজরদারীর মাধ্যমে সংগ্রহ করা তথ্যে দেখাগেছে,  লুংরোলা, জিমিথাং আর বুমলা - এই তিনটি সেক্টরেই চিনা সেনার উপস্থিতি আগের তুলনায় অনেকটাই বেড়ে গেছে। 

Chinas PLA has increased patrols in  Tawang sector, and army officials are also coming BSM

জিমিথাং 
ভারতীয় সেনা বাহিনী সূত্রের খবর জিমিথাং সেক্টরে চিনের পিএসএ- সেনা আধিকারিকরা ২০১৯ সালে মাত্র ৩৩ বার এসেছিলেন। সেখানে ২০২০-২১ সালে সেনা আধিকর্তরা এ এলাকায় ১০২ বার সফল করেছেন। চলতি বছর সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সেনা কর্তামা মাত্র ৮৪বার এই এলাকায় এসেছিলেন। ২০১৯ সালে চিন এই এলাকা.য় মাত্র ৬ বার টহল দিয়েছিল সেখানে ২০২০ সালে ১১ বার টহল দিয়েছে। আর ২০২১ সালে ইতিমধ্যেই ১২বার টহল দেওয়া হয়ে গেছে। 

লুংরোলা
একই ভাবে লুংরোলাতেই চিনা সেনার সক্রিয়তা লক্ষ্য করেছে ভারতীয় সেনা বাহিনী। এই এলাতায় ২০১৮ ও ১৯ সালে চিনা সেনা মাত্রা ১৯ আক ২১ বার টহল দিয়েছিল। ২০২০ সালে টহলের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৩৪।  চলতি বছর এখনও পর্যন্ত ৫০ বার চিনা সেনা টহল দিয়েছে। পাল্লা দিয়ে বেড়েছে সেনা কর্তাদের পরিদর্শনও। সূত্রের খবর চলতি বছর সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ২০বার চিনা সেনা কর্তারা এই দূর্গম এলাকায় এসেছেন। যেখানে তাঁরা ২০১৮ ও ১৯ সালে  ৪-৬ বার ওই এলাকায় পরিদর্শন করেছিলেন। 

https://bangla.asianetnews.com/india/cbi-arrests-navy-officers-in-submarine-information-leak-case-bsm-r1l3on

বুমলা
ভারত ও চিন সীমান্তের গুরুত্বপূর্ণ এলাকা হল বুমলা। এই এলাকায় দুই দেশের সেনা কর্তাদের কথাবার্তা বলার জন্য একটি পার্সোনাল মিটিং পয়েন্টও রয়েছে। এই এলাকায়েই নজর রয়েছে লাল ফৌজের। ২০১৮ ও ১৯ সালে এই এলাকায় চিনারা যেখানে ১৭ ও ১৬ বার টহল দিয়েছিল সেখানে ২০-২১ সালে তাদের টহলের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৯। চলতি বছর ইতিমধ্যেই ওই এলাকায় সেনা কর্তারা ২০ বার পরিদর্শন করেছেন।

West Bengal: রাজ্যে নিষিদ্ধ গুটখা ও পান -মশলা বিক্রি, এক বছরের জন্য বাড়ল নিষেধাজ্ঞা

তাওয়াং-এর তিনটি এলাকায় শুধুই যে সেনা টহলদারী বেড়েছে- এমনটা নয়। এই এলাকায় পাল্লা দিয়ে চিন বাড়িয়ে সমরযানের গতিবিধিও। হালকা ও ভারী গাড়ি প্রায়ই আসতে দেখা যাচ্ছে এই এলাকাগুলিতে। বাড়ান হয়েছে যুদ্ধের নানাবিধ সরঞ্জামও। একটি সূত্র বলছে এই এলাকায় চিন সেনার সংখ্যাও বাড়িয়েছে। কিছু অস্থায়ী পরিকাঠামোও তৈরি করা হয়েছে। তবে ভারত গোটা পরিস্থিতির ওপর তীক্ষ্ণ নজর রাখছে। ভারত ব়্যাডার ভূমি ভিত্তিক ক্যামেরার মাধ্যমে নজরদারী চালাচ্ছে। 

Aryan Khan Case: 'আরিয়ান খান শুধু মাদকের ক্রেতাই নন', কোর্টে শাখরুখ পুত্রের বিরুদ্ধে আরও ঘোরতর অভিযোগ

সেনা সূত্রের খবর তাওয়াং চিনা সীমানার সঙ্গে ভারতের অত্যতম সুরক্ষিত সেক্টর। গতবছর লাদাখ সেক্টরে অস্থিরতা তৈরি হওয়ার পরে এই এলাকাতেও চিন সেনা টহল বাড়িয়ে ছিল। তবে টহলের ধরণে তেমন কোনও পরিবর্তন দেখা যায়নি। এখনও পর্যন্ত মোটের ওপর এই এলাকা শান্ত রয়েছে। তবে ভারতও সতর্ক রয়েছে বলে সূত্রের খবর। 

Chinas PLA has increased patrols in  Tawang sector, and army officials are also coming BSM

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios