শ্রদ্ধাকে হত্যার মাত্র ১২ দিন পরেই সম্পর্ক, আফতাবের মনোরোগ বিশেষজ্ঞ 'বান্ধবী'কে জেরা পুলিশের

| Nov 30 2022, 04:51 PM IST

aftaab cctv shraddha murder case delhi

সংক্ষিপ্ত

শ্রদ্ধা হত্যার মাত্র ১২ দিন পরেই আফতাব সম্পর্ক তৈরি করেছিল আফতাব আমিন পুনাওয়ালা। সেই বান্ধবীকে লম্বা জেরা করল দিল্লি পুলিশ। একটি আংটি দিয়েছে মহিলা।

শ্রদ্ধা ওয়াকারের হত্যায় মূল অভিযুক্ত আফতাব পুনাওয়ালার এক বান্ধবীর সন্ধান পেল পুলিশ। সূত্রের খবর পুলিশ আফতাব পুনাওয়ালার সেই নতুন বান্ধবীর বয়ান রেকর্ড করেছে। মহিলা জানিয়েছেন তিনি শ্রদ্ধার হত্যাকাণ্ডের পর আফতাবের ফ্ল্যাটে দুই বার গিয়েছিলেন। কিন্তু তিনি একবারও বুঝতে পারেননি সেই ফ্ল্যাটে হত্যাকরা হয়েছে এক মহিলাকে। বুঝতে পারেননি মহিলার দেহ টুকরো টুকরো করে রাখা হয়েছিল ফ্ল্যাটের ফ্রিজে। সবকিছু জানার পর মহিলা রীতিমত বিস্ময় প্রকাশ করেছেন ।

দিল্লি পুলিশ সূত্রের খবর,আফতাবের নতুন বান্ধবী জানিয়েছে, গত ১২ অক্টোবর আফতাব তাঁকে একটি আংটি উপহার দিয়েছিল। পুলিশের দাবি আংটিটি শ্রদ্ধার। পুলিশ সেই আংটিটি উদ্ধার করেছে। মহিলার বয়ান রেকর্ড করা হয়েছে। মহিলা আরও জানিয়েছেন, তিনি পেশায় একজন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ। পুলিশের কাছে দেওয়া জবানবন্দিতে মহিলা আরও জানিয়েছেন, তিনি অক্টোবর মাসেই আফতাবের ফ্ল্যাটে দুবার দিয়েছিলেন। তবে শ্রদ্ধা ওয়াকার সম্পর্কে কোনও ধারনা তার ছিল না। নামটি পর্যন্ত কোনও দিন তিনি আফতাবের মুখে শোনেননি। তবে আফতাব যে কোনও কিছুতেই ভয় পায় না তাও তিনি জানিয়েছেন পুলিশকে। তবে শ্রদ্ধা সম্পর্কে কোনও কথা না বললেও আফতার প্রায়ই মুম্বই আর সেখানে থাকা পরিবারের সদস্যদের কথা বলন। মহিলা আরও জানিয়েছেন, ডেটিং অ্যাপের মাধ্যমে তাদের পরিচয় হয়েছিল।

Subscribe to get breaking news alerts

পুলিশ জানিয়েছে, আফতার বিভিন্ন ডেটিং সাইটের মাধ্যমে প্রায় ১৫-২০ জন মহিলার সঙ্গে যোগাযোগ করেছিল। এই মহিলা তাদেরই একজন বলেও জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশ সূত্রের খবর, শ্রদ্ধাকে হত্যার মাত্র ১২ দিন পরে আফতাব মনোরোগ বিশেষজ্ঞ মহিলার সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করেছিল। মহিলা আরও জানিয়েছেন আফতার খুবই ধূমপান করতেন। তবে প্রায়ই তিনি ধূমপান ছেড়ে দেওয়ার কথা বলেতেন। তাদের মধ্যে নানা বিষয় কথা হলেও কোনও দিনই আফতাবের মুখে শ্রদ্ধার নাম শোনেননি । আফতাবের প্রেম বা সহবাস সম্পর্কেও কোনও কথা জানতেন না বলেও জানিয়েছেন।

শ্রদ্ধা ওয়াকার হত্যাকাণ্ডে এখন পুলিশ হেফাজতে রয়েছে আফতাব আমিন পুনাওয়াল। তবে আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী দিল্লি পুলিশ প্রয়োজনে আফতাবের নার্কো টেস্টে ও পলিগ্রাফ টেস্ট করতে পারেবে। বর্তমানে তাকে রাখা হয়েছে তিহাড় জেলে। সম্প্রতি রোহিনি ল্যাবরেটরি পলিগ্রাফ টেস্টের পর আফতাবকে নিয়ে যাওয়ার সময় পুলিশ ভ্যানে হামলা চালায় দুষ্কৃতী। তারা আফতাবকে হত্যা করেবে বলেও হুঁশিয়ারি দেয়।

আরও পড়ুনঃ

ইছামতীর বুকে লঞ্চে ভ্রমণ মমতার, জেলা সফরে সম্পূর্ণ অন্য মেজাজে দেখা গেল মুখ্যমন্ত্রীকে

পর্ন দেখে উত্তেজিত হয়ে প্রতিবেশী ১০ বছরের মেয়েকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ১৭ বছরের অভিযুক্ত

গুজরাটের ভোট প্রচারে রাহুল গান্ধীকে কটাক্ষ, অমিত শাহ বললেন- 'মোদী দাঙ্গাবাজদের শাস্তি দিয়েছে'