এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট বা ED এবার নোটিশ পাঠাল  ক্রিপ্টোকারেন্সে এক্সচেঞ্জের উজিরএক্স (Wazir X) এর ডিরেক্টর নিলয় শেঠ্ঠ ও সমীর মাহেত্রাকে।  চিনা মালিকানাধীন অবৈধ অনলাইন আবেদনের বিষয় চলমান অর্থ পাচারের তদন্তের জন্যই এই নোটিশ জারি করা হয়েছে। নোটিশটি ইস্যু করা হয়েছে ফরেন এক্সচেঞ্জ ম্যানেজমেন্ট অ্যাক্ট ১৯৯৯ এর আওতায়। নোটিশে বলা হয়েছে সংস্থাটি ২,৭৯০,৭৪ কোটি টাকার লেনদেনের সঙ্গেযুক্ত রয়েছে। 

জিতিন প্রসাদের পর কী শচীন পাইলট, দিল্লি সফর নিয়ে কংগ্রেসের অন্দরে জল্পনা তুঙ্গে ...

ইডি দাবি করেছে সংস্থাটি প্রায় ৫৭ কোটি টাকা আর্থিক তছরুপের সঙ্গে জড়িয়ে রয়েছে। চিনা নাগরিকরা ক্রিপ্টোকারেন্সি তিথারে রূপান্তর করে তারপর  বিন্যাসে ওয়ালেটের কাছ থেকে প্রাপ্ত নির্দেশের ভিত্তিতে বদলি করে প্রায় ৫৭ কোটি টাকা। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাটি মনে করে ইজির এক্স ভারতীয় মুদ্রার সঙ্গে ক্রিপ্টো-মুদ্রা বিনিয়ম ও ব্যক্তিগত লেনদেন, এমনকি তাদের পুলের অ্যাকাউন্ট থাকা ক্রিপ্টো মুদ্রার স্থানান্তর অথবা প্রাপ্তিসহ বিভিন্ন ক্রিইপ্টো মুদ্রা সঙ্গে বিস্তৃত লেনদেনের অনুমতি দেয়। এই এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে বিদেশের সঙ্গেও লেনদেন করাযায়।

প্রয়াত বিশ্বের সর্ববৃহৎ পরিবারের প্রধান, ৩৯ স্ত্রী আর ৯৪ সন্তান রেখে পরলোকে জিয়ানা চানা ... Rea 

G-7 দেশগুলির স্বাভাবিক বন্ধু ভারত, হিংসা আর সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায় প্রথম সারিতে রয়েছে বললেন মোদী ...

ইডি অভিযোগ করেছে যে উজির এক্স সন্ত্রাসবাদী সতর্কততা নীতিসহ একাধিক গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্র সংগ্রহ করেনি। ইডি জানিয়েছে তাদের তদন্তের সময় সংস্থাটি জানতে পেরেছিল উজির অক্স ব্যবহারকারীরা তার পুল অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে বাইনান্স অ্যাকাউন্ট থেকে ৮৮০ কোটি টাকা ক্রিপ্টোকারেন্সে লাভ করতে পেরেছে। ১৪০০ কোটি চাকা ক্রিপ্ট কারেন্সি অ্যাকাউন্টে স্থানান্তর করেছে। যদিও সংস্থাটি দাবি করেছে তাদের লেনদেন সম্পর্ণ বৈধ। আরও দেখা গেছে উজির এক্সের ব্যবহারকারীরা যথাযথ তথ্য ছাড়াই যেকোনও স্থান বা দেশ থেকে যে কোনও ব্যবহারকারীকে টাকাপয়সা পাঠাতে পারেন। ইডির দাবি বেআইনি খাতে লেনদেনের জন্য একটি একটি গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম হয়ে উঠছে।