রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে রেকর্ড পরিমাণ নগদ নিচ্ছে কেন্দ্রীয় সরকার। এই নিয়ে প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রীকে তীব্র আক্রমণ করলেন কংগ্রেসের প্রাক্তন সভাপতি রাহুল গান্ধী। তাঁর মতে এই 'অর্থনৈতিক বিপর্যয়' মোদী সরকারেরই তৈরি করা। আর এর সমাধান সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী ও অর্থমন্ত্রী একেবারে 'দিশাহীন'। সরকারের এই পদক্ষেপকে তিনি 'গুলির আঘাতে চুরি করে আনা ব্যান্ডএড লাগানো'র মতো।

রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ৮০০০ কোটি টাকার 'সারপ্লাস রিজার্ভ'-সহ মোট ৬৬০০০ কোটি টাকা কেন্দ্রকে দেবে এমনটাই মনে করেছিল সংশ্লিষ্ট মহল। কেন্দ্র চলতি আর্থিক বছরের জন্য বাজেটে এর পরিমাণ ধরেছিল ৯০০০০ কোটি। কিন্তু বিমল জডালান কমিটির রিপোর্টের পরই এই তার থেকে পরিমাণটা অনেকটাই কম হবে মনে করা হয়েছিল। কিন্তু কেন্দ্র শুধু এতেই থেমে থাকেনি। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের সেন্ট্রাল বোর্ডকে ৫২,৬৩৭ টাকার 'এক্সেস প্রভিশন'-ও কেন্দ্রে ট্রান্সফার করার বিষয়ে রাজি করিয়েছে। ফলে সব মিলিয়ে পরিমাণা বাজেটে নির্ধারিত অর্থের পরিমাণের প্রায় আড়াই গুণ বেড়ে ১.৭৬ লক্ষ কোটিতে গিয়ে দাঁড়িয়েছে।

আরও পড়ুন -দুর্নীতির বিরুদ্ধে মোদী সরকারের লড়াই অব্যাহত, রেহাই পেলেন না কাস্টমস অফিসাররাও

আরো পড়ুন - অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে ফের কমল রেপো রেট, গৃহঋণের কিস্তি আরও কমল

আরো পড়ুন - আপনার মানি ব্যাগে জায়গা করে নিতে বাজারে আসছে নতুন ২০ টাকার নোট

আরো পড়ুন - ৫০ পয়সা, ১ টাকার কয়েন কি বৈধ, স্পষ্ট জানিয়ে দিল রিজার্ভ ব্যাঙ্ক

এই নিয়ে সরকারকে বিধেছেন কংগ্রেস নেতা রণদীপ সিং সুরজেওয়ালাও। বাজেটে যে অর্থের ঘাটতি ছিল, তার সঙ্গে এই রিজার্ভ ব্যাঙ্ক থেকে ধার করা অর্থের পরিমাণ একেবারে মিলে যাওয়াটা কাকতালিয় কি না তাই নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি। সেই সঙ্গে তিনি বাজেটের পরে এই ঘাটতির বিষয়ে প্রকাশিত একটি সংবাদ প্রতিবেদনও জুড়ে দিয়েছেন।কেগ্রেস দলের মুখপাত্র সঞ্জয় ঝাঁ আরবিআই-এর নাম 'রবড ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া' বলেছেন।