Asianet News BanglaAsianet News Bangla

বিজেপির মিশন ২০২৪- ৭৮ হাজার গুরুত্বহীন বুথ চিহ্নিতকরণ, বুথ প্রতি ৩০ জন নতুন সদস্য যোগের লক্ষ্যমাত্রা

বৈঠকে ১৭ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জন্মদিনের জন্য কী কর্মসূচি নেওয়া হবে তা নিয়েও আলোচনা হয়েছে। বিজেপির সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) বিএল সন্তোষ শুক্রবার বিজেপি শাসিত সমস্ত রাজ্যের ইনচার্জদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। 

Identification of 78 thousands weak booths, target of adding 30 new members per booth-BJP's Mission 2024 bpsb
Author
First Published Sep 3, 2022, 10:34 AM IST

ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে। দলের সদর দফতরে সাধারণ সম্পাদকদের সঙ্গে বৈঠক করেন দলের জাতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা। এই বৈঠকে বুথগুলিকে শক্তিশালী করার উপর জোর দেওয়া হয়। উল্লেখ্য, এই বছরের মে মাসে, বিজেপি দলের জন্য ৭৮ হাজার দুর্বল বুথ চিহ্নিত করেছিল। এবার প্রতিটি বুথে অন্তত ৩০ জন নতুন সদস্যকে দলের সঙ্গে যুক্ত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের পাশাপাশি লোকসভা এবং রাজ্যসভার সাংসদের একটি দলও এই কাজের জন্য যুক্ত হয়েছে। সাংসদদের প্রত্যেককে ১০০টি বুথ দেওয়া হয়েছে। রাজ্যগুলির দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের ভাগে। জানা গিয়েছে বিজেপির এই কর্মসূচির প্রথম পর্ব শেষ হয়েছে ৩১ আগস্ট। এই সময়ে, বিজেপি প্রতিটি বুথ থেকে গত তিনটি নির্বাচনের ভোটের প্যাটার্ন এবং সেখানে বিজেপির ভোট ভাগ সংগ্রহ করেছে। এ ছাড়া একটি প্রতিবেদনও তৈরি করা হয়েছে। এটি বিজেপিকে স্পষ্ট ধারণা দিয়েছে যে কোন বুথে তার ভোটার কারা ছিল এবং কোন লোককে দলের আদর্শের সাথে যুক্ত করতে হবে।

আরও পড়ুন - মণিপুরে ধাক্কা নীতিশ কুমারের, ছয় জন বিধায়কের মধ্যে পাঁচজনের যোগ বিজেপিতে

সাংসদদের পরামর্শ অনুযায়ী একদল স্বেচ্ছাসেবক সব বুথ পরিদর্শন করেছে এবং ভোটারদের সঙ্গে মতবিনিময় করেছে। এরপর 'সরল' নামে একটি বিশেষ সফটওয়্যারে এই গোটা রিপোর্টটি আপলোড করা হয়েছে। নথি আপলোড করার আগে এলাকার দায়িত্বপ্রাপ্ত এমপির মোবাইল ফোনে পাঠানো ওয়ান টাইম পাসওয়ার্ডও দিতে হয়েছে। এই ডেটা রাজ্য থেকে কেন্দ্রীয় স্তরে ডিজিটালভাবে আপডেট করা হয়।

আরও পড়ুন- উৎসবের মরসুমে একগুচ্ছ গাইডলাইন জারি করল দিল্লি দূষণ নিয়ন্ত্রণ কমিটি, দেখে নিন এক ঝলকে

এই বৈঠকে, বিজেপি নেতারা অনেক রাজ্যে ডেটা আপলোডের কাজ শেষ হওয়ার বিষয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। রাজস্থানের মতো কিছু রাজ্যে কিছু কাজ বাকি আছে, যা সেপ্টেম্বরে শেষ হবে। উত্তর প্রদেশ এবং বিহারের মতো রাজ্যগুলি ইতিমধ্যেই পরবর্তী পর্যায়ে চলে গেছে। এখানে সিনিয়র নেতারা এখন এসব বুথ ঘুরে ভোটারদের সঙ্গে সরাসরি মতবিনিময় করছেন।

আরও পড়ুন- আগ্রহী নয় ভারত, তবু এসসিও সম্মেলনে মোদীর সঙ্গে বৈঠকে বসতে পা বাড়িয়ে চিন

এছাড়াও, এই বৈঠকে ১৭ সেপ্টেম্বর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর জন্মদিনের জন্য কী কর্মসূচি নেওয়া হবে তা নিয়েও আলোচনা হয়েছে। বিজেপির সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) বিএল সন্তোষ শুক্রবার বিজেপি শাসিত সমস্ত রাজ্যের ইনচার্জদের সঙ্গে বৈঠক করেছেন। এর আগে, গত বছরের ডিসেম্বরে (বারাণসীতে) এবং জুলাই (দিল্লিতে) বিজেপি শাসিত রাজ্যগুলির মুখ্যমন্ত্রী এবং উপ-মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে প্রধানমন্ত্রী মোদী দুটি বৈঠক করেছিলেন।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios