Asianet News BanglaAsianet News Bangla

প্রাক্তন বিজেপি মুখপাত্র নূপুর শর্মার বিরুদ্ধে জঙ্গি হামলার ছক, উত্তরপ্রদেশ থেকে ধৃত যুবক

নূপুর শর্মার ওপর হামলার ছক কষে মহম্মদ নাদিমকে উপযুক্ত প্রশিক্ষণ দিয়েছিল জঙ্গিরা। ২৫ বছর বয়সী ওই তরুণের সক্রিয় যোগাযোগ ছিল পাকিস্তান এবং আফগানিস্তানের সংগঠনের সঙ্গে।

Jaish e Mohammed terrorist planned to kill suspended BJP spokesperson Nupur Sharma ANBSS
Author
First Published Aug 13, 2022, 9:17 AM IST

বিজেপির বরখাস্ত মুখপাত্র নূপুর শর্মার উপর হামলা চালানোর ছক সন্ত্রাসবাদীদের। শুক্রবার উত্তরপ্রদেশ থেকে জইশ-ই-মোহাম্মদের সাথে জড়িত থাকার সন্দেহে গ্রেফতার এক জঙ্গি। উত্তরপ্রদেশের পশ্চিম দিকের  সাহারানপুর জেলা থেকে তাকে পাকড়াও করা হয়েছে। তিনি ওই জেলারই বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে।

সন্ত্রাসী সন্দেহে ওই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের অ্যান্টি-টেররিস্ট স্কোয়াড, ধৃতের নাম মহম্মদ নাদিম, বয়স প্রায় ২৫ বছর। তিনি সাহারানপুর জেলার গঙ্গোহ থানার অন্তর্গত কুন্দা কালা গ্রামের বাসিন্দা।

একটি বিবৃতিতে উত্তরপ্রদেশ পুলিশের আইন শৃঙ্খলা বিভাগের অতিরিক্ত মহাপরিচালক প্রশান্ত কুমার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন যে, ধৃত নাদিমের ফোন বার্তাগুলি থেকে উদ্ধার হওয়া চ্যাট এবং ভয়েস বার্তাগুলি ট্রেস করে সেগুলি পাকিস্তান এবং আফগানিস্তান থেকে পাঠানো বলে যথাযথ তথ্য পাওয়া গেছে।

সংবাদ সংস্থা পিটিআইয়ের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, মহম্মদ নাদিম নামের ওই তরুণের কাছ থেকে দুটি সিম কার্ড পাওয়া গেছে। বিভিন্ন ধরনের বোমা তৈরির ফর্মুলাও উদ্ধার করা হয়েছে। বিস্তারিত বিবরণে বলা হয়েছে, লখনউয়ের এটিএস পুলিশ স্টেশনে বেআইনি কার্যকলাপ (প্রতিরোধ) আইনের অধীনে তার বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

প্রতিবেদন অনুসারে, ধরা পড়ার পর নাদিম পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদের সময় বলেছেন যে, তিনি ২০১৮ সাল থেকে জেইএম-এর সাথে সরাসরি যোগাযোগ করেছিলেন এবং দলটি তাকে বিশেষ প্রশিক্ষণের জন্য পাকিস্তান এবং সিরিয়াতে আমন্ত্রণ জানিয়েছিল। এরপর তিনি নিজেই পুলিশকে জানান যে, ভিসা তৈরি হওয়ার জন্য তিনি ভারতে অপেক্ষা করছিলেন।

২০২২ সালের মে মাসে একটি টেলিভিশন চ্যানেলে বিতর্ক অনুষ্ঠান চলার সময়ে ইসলাম ধর্মগুরু নবী মহম্মদের বিরুদ্ধে বিজেপি (তৎকালীন) নেত্রী নূপুর শর্মার মন্তব্য দেশ ও বিশ্ব জুড়ে ইসলাম ধর্মীয়দের মধ্যে ক্ষোভ ও প্রতিবাদের জন্ম দেয়। বিজেপি তাঁকে দলের জাতীয় মুখপাত্রের পদ থেকে তড়িঘড়ি বরখাস্ত করে। এরপর বহুদিন তাঁর অবস্থান সম্পর্কে কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি (আন ট্রেসেবল)। বিভিন্ন থানায় তাঁর বিরুদ্ধে একাধিক মামলা দায়ের হয়। একাধিক হত্যার হুমকিও পেয়েছিলেন তিনি। এবার সরাসরি জঙ্গিদের নিশানা হয়ে যাওয়ার প্রমাণে তাঁর প্রাণনাশের আশঙ্কা আরও তীব্র হল।


আরও পড়ুন-
আসামে আল-কায়দা জঙ্গিগোষ্ঠীর মডিউল, ১১ জনের গ্রেফতার নিয়ে মুখ খুললেন মুখ্যমন্ত্রী
বিজেপির আইটি সেলের প্রাক্তন প্রধান বর্তমানে লস্কর জঙ্গি, ধরা পড়ল পুলিশের হাতে
খেলা শুরু চিনের, কাশ্মীরের জঙ্গি সংগঠনকে অস্ত্র সরবরাহ-নজর মায়ানমার সীমান্তের দিকেও

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios