Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Purvanchal Expressway: যুদ্ধবিমানে সড়কে অবতরণ মোদীর, যোগী রাজ্যে আজ উদ্বোধন পূ্র্বাঞ্চল এক্সপ্রেসওয়ের

 লখনউয়ের সঙ্গে রাজ্যের আটটি জেলাকে সংযুক্ত করা এই এক্সপ্রেসওয়েতে সুলতানপুরের কাছে রয়েছে ৩.৩ কিলোমিটারের রানওয়ে। 

Modi tweets on Purvanchal Expressway launch today bmm
Author
Kolkata, First Published Nov 16, 2021, 5:07 AM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

বছর ঘুরলেই উত্তরপ্রদেশে বিধানসভা নির্বাচন (Uttar Pradesh Assembly Election)। আর তার আগেই যোগী আদিত্যনাথের (Yogi Adityanath) রাজ্যের হাতে ৩৪১ কিলোমিটার দীর্ঘ ‘পূর্বাঞ্চল এক্সপ্রেসওয়ে’ তুলে দিতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (PM Narendra Modi)। আজ পূ্র্বাঞ্চল এক্সপ্রেসওয়ের  (Purvanchal Expressway)উদ্বোধন করবেন তিনি। দুপুর দেড়টার সময় এই এক্সপ্রেসওয়ের উদ্বোধন করা হবে বলে টুইট করে জানিয়েছেন খোদ প্রধানমন্ত্রী।

টুইটারে (Twitter) ওই এক্সপ্রেসওয়ের বেশ কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছেন মোদী। সেখানে তিনি লেখেন, "উত্তরপ্রদেশের অগ্রগতির ক্ষেত্রে এই দিনটি খুবই গুরুত্বপূর্ণ। দুপুর দেড়টার সময় পূর্বাঞ্চল এক্সপ্রেসওয়ের উদ্বোধন করা হবে। উত্তরপ্রদেশের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নতির ক্ষেত্রে এই প্রোজেক্ট গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে।"

 

 

লখনউয়ের সঙ্গে রাজ্যের ৯টি জেলাকে সংযুক্ত করা এই এক্সপ্রেসওয়েতে সুলতানপুরের (Sultanpur) কাছে রয়েছে ৩.৩ কিলোমিটারের রানওয়ে। সেখানে আপৎকালীন পরিস্থিতিতে যুদ্ধবিমান (Indian Air Force) অবতরণ করতে পারবে। আর এই এক্সপ্রেসওয়ে উদ্বোধনের সময় সি-১৩০ সুপার হারকিউলিস যুদ্ধবিমানে করে এসে ওই রানওয়েতে নামবেন খোদ প্রধানমন্ত্রী। তারপর এক্সপ্রেসওয়ের উদ্বোধন করবেন তিনি। তবে প্রধানমন্ত্রীর যুদ্ধবিমানের চাকা এক্সপ্রেসওয়ে ছোঁয়ার আগে থেকেই ভারতীয় শৌর্যের প্রদর্শনী শুরু হয়ে যাবে সেখানে। মিরাজ-২০০০, এসইউ-৩০এমকেআই এবং রাফাল যুদ্ধবিমানও ওই এয়ারস্ট্রিপে নামবে।

আরও পড়ন- সিবিআই-ইডির পর, এবার বাড়ল 'র' ও আইবি প্রধানের কার্যকালের মেয়াদ

এই এক্সপ্রেসওয়ে দেশের দীর্ঘতম বলে দাবি করা হচ্ছে। ভবিষ্যতে বরেলি পর্যন্ত এই এক্সপ্রেসওয়ের সম্প্রসারণ হবে বলে জানিয়েছেন উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।  উত্তর প্রদেশের ৯টি জেলার মধ্যে দিয়ে যাবে এই এক্সপ্রেসওয়ে। তার মধ্যে রয়েছে লখনউ, সুলতানপুর, ফৈজাবাদ, আম্বেডকরনগর, আজমগড়, বারাবাঁকি, অমেঠি, মউ এবং গাজিপুর। আর এই এক্সপ্রেসওয়ের জন্য উপকৃত হবেন প্রায় দশ লক্ষ মানুষ। পূর্বাঞ্চল এক্সপ্রেসওয়ে দিয়ে যাতায়াতের জন্য দু'টি জায়গায় টোল ট্যাক্স দিতে হবে। লখনউ এবং মউয়ের মধ্যে দু'টি জায়গায় টোল প্লাজার ব্যবস্থা করা হয়েছে।

আরও পড়ুন- 'স্বাধীনতার পর থেকে আদিবাসীদের ভূমিকার কথা কেউ তুলেই ধরেনি', আক্ষেপ মোদীর

এই মুহূর্তে এই এক্সপ্রেসওয়ের ৬টি লেন রয়েছে। তবে ভবিষ্যতে লেনের সংখ্যা ৮ করা হবে বলে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জানানো হয়েছে। আর প্রোজেক্টের জন্য আনুমানিক ২২ হাজার ৫০০ কোটি টাকা খরচ হয়েছে বলে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জানানো হয়েছে। এই এক্সপ্রেসওয়ের মাধ্যমে লখনউ থেকে গাজিপুরে যাতায়াতের সময় পাঁচ ঘণ্টা কমে যাবে। একটি লিঙ্ক রোডের মাধ্যমে এই এক্সপ্রেসওয়ের সঙ্গে বারাণসীকেও যুক্ত করা হবে। এছাড়া ভবিষ্যতে এই এক্সপ্রেসওয়ের সঙ্গে আগ্রা-গ্রেটার নয়ডা এবং আগ্রা-লখনউ এক্সপ্রেসওয়েকে যুক্ত করা হবে।

আরও পড়ুন- 'আমার নয়, হিন্দু ধর্মের উপর আঘাত', বাড়ি ভাঙচুরের ঘটনায় মন্তব্য খুরশিদের

ব্যালট যুদ্ধের কথা মাথায় রেখে আগে থেকেই মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ তাঁর বিভিন্ন রাজনৈতিক প্রচারে তালিবান-তত্ত্ব সামনে এনে বার বার তাঁর সরকারের ‘শক্তিশালী ছবিকে’ তুলে ধরতে চাইছেন। সূত্রের বক্তব্য, এতে হিন্দুত্ব রাজনীতির পালে যেমন বাতাস লাগছে, তেমনই ‘পাল্টা’ দিতে গিয়ে প্রধান বিরোধী দল এসপি-ও মেরুকরণের বাকিটুকু সম্পূর্ণ করছে মহম্মদ আলি জিন্নার প্রশংসা করে। তাদের সংখ্যালঘু ভোটব্যাঙ্ককে একত্রিত করার দায় রয়েছে। এবং সবটাই করা হচ্ছে উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা ভোটের দিকে তাকিয়ে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios