Asianet News BanglaAsianet News Bangla

আলাপ করুন স্নেহা দুবের সঙ্গে, রাষ্ট্রসংঘে মহিলা আধিকারিক এক হাত নিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে

স্নেহা দুবে পাকিস্তানকে নিশানা করে বলেছেন দেশটি নিজেকে অগ্নিনির্বাপক হিসেবে গোটা বিশ্বের কাছে তুলে ধরে। কিন্তু আসলে পাকিস্তান ছদ্মবেশী অগ্নিসংযোগকারী। 
 

Pakistan globally recognised for openly  supporting terrorists india s ifs sneha dubey says un bsm
Author
Kolkata, First Published Sep 25, 2021, 3:30 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

ভারতের প্রথম সচিব স্নেহা দুবে (Sneha Dubey) পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে (Imran Khan PM of Pakistan) রাষ্ট্র সংঘের (United Nation) আসরে এক হাত নেন। কারণ সন্ত্রাসবাদে (Terrorist) পৃষ্ঠপোশক ও সংখ্যালঘুর বিরুদ্ধে নির্যাতনের অভিযোগ তুলে ভারত (India) সরাসরি পাকিস্তানকেই নিশানা করেছিল। তারই পরিবর্তে পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান ভারতের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছিলেন। ইমরান খানের ভাষণের পরিপ্রেক্ষিতে স্নেহা দুবে একটি জ্বালাময়ী ভাষণ দেন। তারপরই সোশ্যাল মিডিয়ায় ধন্য ধন্য রব উঠেছে স্নেহা দুবের নামে। 

স্নেহা দুবে পাকিস্তানকে নিশানা করে বলেছেন দেশটি নিজেকে অগ্নিনির্বাপক হিসেবে গোটা বিশ্বের কাছে তুলে ধরে। কিন্তু আসলে পাকিস্তান ছদ্মবেশী অগ্নিসংযোগকারী। এমনই কড়া মন্তব্য করেন তিনি। পাশাপিশি বলেন, 'শুধুমাত্র প্রতিবেশীদের ক্ষতি করবে,  এই একটি মাত্র আশায় পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদীদের প্রতিপালন করে।  আমাদের অঞ্চল ও সমগ্র বিশ্ব তাদের নীতির কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। অন্যদিকে নিজের দেশে সন্ত্রাসবাদী কর্মকাণ্ড ঢাকতে সাম্প্রদায়িক হিংসাকেই হাতিয়ার করছে।'

স্নেহা দুবে আরও বলেছেন পাকিস্তানের শীর্ষ নেতৃত্ব ভারতের বিরুদ্ধে মিথ্যা ও বিদ্বেষমূলক প্রচার চালিয়ে যাচ্ছে। আর সেই প্রচার চালানোর জন্য তারা আন্তর্জাতিক মঞ্চ ব্যবহার করছে। এই ঘটনা বারবার ঘটছে বলেও স্পষ্ট করে দিয়েছেন তিনি। পাকিস্তানের এই আচরণ যে ভারত মেনে নিচ্ছে না তাও স্পষ্ট হয়ে যাচ্ছে বিদেশ সচিবের এই মন্তব্যে। তিনি আরও বলেছেন সন্ত্রাসবাদীদের আশ্রয় দেওয়ার পাশাপাশি পাকিস্তানের তাদের অর্থ, প্রশিক্ষণ আর অস্ত্র দিয়েও সাহায্য করেছে। সবথেকে বেশি নিষিদ্ধ সন্ত্রাসবাদীদের আস্তানা যে পাকিস্তানে তাও  দৃঢ় কণ্ঠে বলেন তিনি। তিনি ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানের তুলনা করতে গিয়ে বলেন পাকিস্তানের মত ভারত নয়। এদেশের গণমাধ্যম স্বাধীন। আর স্বাধীন একটি বিচার বিভাগ রয়েছে যা সংবিধানিক দৃষ্টিভঙ্গীর ভিত্তিতেও সকলের ওপর নজর রাখে। ভারতের বহুত্ববাধের একটি ধারনা রয়েছে যা পাকিস্তানের নেই। সেদেশে সংখ্যালঘুরদের ওপর ক্রমাগত অত্যাচার চলে। দেশ তাদের উচ্চাকাঙ্খা বাস্তবায়িত করতে দেয় না। বিশ্বমঞ্চে নিজেদের উপহাস্যের পাত্র তৈরি করার আগে নিজেদের নিয়ন্ত্রণ করা জরুরি পাকিস্তানের- এমন মন্তব্যও করেছেন স্নেহা দুবে।

৬ মাস গ্রামের সমস্ত মহিলার কাপড় কাচতে হবে, এক ব্যক্তিকে কেন এই অভিনব সাজা শোনাল আদালত

চিন পাকিস্তানের মোকাবিলায় বড় পদক্ষেপ প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের, ১১৮টি 'নতুন' অর্জুন তৈরির বরাত

Evergrande: দেউলিয়া হওয়ার পথে এভারগ্রান্ড, চিনা সংস্থার জন্য কোটি কোটি লোকসান বিল গেটসদের
স্নেহা দুবের এই মন্তব্যের প্রতিক্রিয়া জানাতে গিয়ে ভারতের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, স্নেহা দুবে সঠিকভাবেই পাকিস্তানের পর্দা ফাঁস করেছে আন্তর্জাতিক মঞ্চে। সন্ত্রাসবাদের সঙ্গে পাকিস্তানের সম্পর্ক নতুন নয়। এর আগেই ওসামা বিন লাদেনকে আশ্রয় দিয়েছে, নিরাপত্তা দিয়েছে। একটি বাড়িও দিয়েছে। ওসামাকে পাকিস্তান শহিদের মর্যাদা নিয়েছে। ভারত যে স্নেহার পাশে রয়েছে তাও স্পষ্ট করেছে ভারত।

প্রশ্ন হচ্ছে কে এই স্নেহা দুবে?
স্নেহা দুবে ২০২০ সালের ব্যাচের আইএফএস অফিসার, যিনি পাকিস্তানের আসল চেহারা পুরো বিশ্বের সামনে তুলে ধরেছেন। তিনি প্রথমবারই ইউপিএসসি পরীক্ষায় পাস করেছেন। আইএফএস অফিসার হওয়ার পর বিদেশ মন্ত্রকে নিয়ুক্ত হন। ২০১৪ সালে মাদ্রিদের দূতাবাসে তৃতীয় সচিব হিসেবে দায়িত্ব পেয়েছিলেন। বর্তমানে তিনি রাষ্ট্রসংঘের প্রথম সচিব। স্নেহা জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নানোকোত্তর ও এফফিল করেছেন। গোয়াতে প্রাথমিক শিক্ষা সম্পন্ন করেছিলেন তিনি। পুনেপর ফার্গুনসন কলেজ থেকে স্নাতন ডিগ্রি অর্জন করেছিলেন। তিনি তাঁর পরিবারের প্রথম সিভিল সার্ভিস অফিসার।  

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios