ভারত চিন সীমান্তে উত্তেজনার পরই চিনা পণ্য বয়কটের ডাক দিয়েছেন বহু মানুষ। লাদাখের গবেষক সোনম ওয়াংচুক চিনা পণ্য বয়কট করার কথা বলেছিলেন। তাঁর বক্তব্য ছিল ভারতীয়রাই চিনাদের পকের ভারী করে। ভারতের পয়সাতেই শক্তিশালী হচ্ছে চিনা সেনা। তাই চিনের সঙ্গে অর্থনৈতিক দূরত্ব বজায় রাখা প্রয়োজন। তিনি নিজেও চিনা পণ্য বয়কট করবেন বলে জানিয়েছিলেন ভিডিও বার্তায়। 

সোমবার চিনা সেনাবাহিনীর হাতে ভারতীয় জওয়ানরা শহিদ হওয়ার পর এই দাবি আরও প্রকোট হয়। কেন্দ্রীয় সরকারও চিনা পণ্যের পরিবর্তে দেশীয় পণ্য ব্যবহারে জোর দিচ্ছে। চিনা অ্যাপেও বিপদ লুকিয়ে রয়েছে বলে রিপোর্ট জমা দিয়েছে গোয়েন্দা সংস্থা। 


অভিনব কায়দায় সেই সুরেরই তাল মেলালেন বিহারে জন অধিকার পার্টির সভাপতি পাপ্পু যাদব। বৃস্পতিবার দলের কর্মী সমর্থকদের নিয়ে জড়ো হয়েছিলেন পাটনার কোতওয়ালি চকে। উদ্দেশ্য ছিল চিনা পণ্যের বিজ্ঞাপণের হোডিংগুলি সাফাই করা।  আর এক জন্য নিয়ে আসা হয়েছিল জেসিবি। 

গালওয়ান নদীর গতি আটকাতে বোল্ডার ফেলছে চিন, স্যাটেলাইট ইমেজে ধরা পড়েছে যুদ্ধ প্রস্তুতি ...

গালওয়ানে কেন নিরস্ত্র ছিল ভারতীয় জওয়ানরা, রাহুলের প্রশ্নের উত্তর দিচ্ছে 'ইতিহাস' ...

পাপ্পু যাদব সেই জেসিবিতে চড়েই চিনা ফোনের একটি বিজ্ঞাপন মুছেদেন। চিনা পণ্য বয়কট করার দাবিতে বিক্ষোভও প্রদর্শন করেন তিনি। এদিনই সেই বিক্ষোভ সমাবেশ থেকে ঘোষণা করেন, লাদাখে চিনা সেনাদের হাতে মৃত বিহারের সৈনিকদের পরিবারের হাতে এক লক্ষ টাকা তুলে দেওয়া হবে।  চিনকে ধাক্কা দেওয়ার জন্য সেই দেশের অর্থনীতিকে দূর্বল করার প্রয়োজন বলেও মন্তব্য করেন পাপ্পু যাদব। বুধবার থেকে পাপ্পু পাটনা একাধিক দোকান ঘুরে চিনা পণ্য বয়কটের ডাক দিয়েছেন। 

লাদাখ নিয়ে রাহুলের মন্তব্যকে হাতিয়ার করতে পারে চিন, কংগ্রেস সাংসদের বিরুদ্ধে অভিযোগ বিজেপির ...