নিজের মাসিক রেডিও অনুষ্ঠান মান কি বাত-এ অনেক দিন আগেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী দেশের নাগরিকদের কাছে দেশের সেনা জওয়ানদের জন্য একটি বাতি বা প্রদীপ জ্বালানোর আবেদন জানিয়েছিলেন। দীপবলির উৎসবের প্রাককালে প্রধানমন্ত্রী আরও একবার তাঁর আবেদনের কথা স্মরণ করিয়েছিলেন। শুক্রবার সোশ্যাল মিডিয়ায় বার্তা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন ভারতীয় সেনাদের সেলাম, যাঁরা নির্ভিকভাবে গোটা দেশকে সুরক্ষা দিচ্ছে। ভারতীয় জওয়ানদের বীরত্বের সঙ্গে কোনও কিছুরই তুলনা হয় না। তাঁদের জন্য দীপাবলির একটি প্রদীপ উৎসর্গ করি। এদিন সেনাবাহিনীর পাশাপাশি তিনি সীমান্তবর্তী এলাকার বাসিন্দাদের কথাও স্মরণ করেন। তিনি বলেন সীমান্তবর্তী এলাকায় থাকা পরিবারগুলির কাছেও তিনি কৃতজ্ঞ। 

এদিন সকাল থেকেই উত্তপ্ত ছিল জম্ম ও কাশ্মীর সীমান্ত। উরি,কেরান, গুরেজ সেক্টরে সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘনের অভিযোগ উঠে পাকিস্তানের বিষয়ে। এদিন তা নিয়ে কোনও বার্তা দেননি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে এদিন সরব হন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। পাশাপাশি নরেন্দ্র মোদীর মত তিনিও সেনা জওয়ানদের বীরত্বের প্রশংসা করেন।  তিনি বলেন পাকিস্তান যখনই সংঘর্ষ বিরতি লঙ্ঘন করে তখন তাদের ভয় ও ভীতি আরও প্রকট হয়ে যায়। আর সেই সঙ্গে তিনি বলেন, উৎসবের মরশুমে ভারতীয় সেনারা পরিবারের থেকে দূরে থেকে সীমান্ত পাকিস্তানের জঘন্য পরিকল্পনা বানচাল করে দিয়েছে। দেশের সেনা জওয়ানদের সেলাম জানিয়েছেন তিনি। 

পাক-গুলিতে মাথা এফোঁড় ওফোঁড় হয়ে গেল বিএসএফ জওয়ানের, দেখে নিন সিজফায়ারের ভিডিও .

৪-এর বদলা ৮, ভারতীয় সেনার ক্ষেপণাস্ত্রে উড়ে গেল পাক সেনার বাঙ্কার ...
এদিন সকাল থেকে জম্মু ও কাশ্মীরের উরি থেকে গুরেজ সেক্টর পর্যন্ত বিস্তীর্ণ এলাকা উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। প্রথমে পাকিস্তান সীমান্ত নীতি লঙ্ঘন করে বলে অভিযোগ। প্রতিহত করতে গিয়ে ভারতও গোলা বর্ষণ করে। ভারতের ৪ সেনা জওয়ানসম দুই স্থানীয় বাসিন্দার মৃত্যু হয়। আহত হয়েছে ১২ জওয়ান। পাল্টা পাকিস্তানের ৭-৮ সেনা জওয়ান নিহত হয়। সেনার সূত্রে বেশ কয়েকটি ভিডিও প্রকাশ করা হয়। তাতে দেখা যাচ্ছে পাকিস্তানের সেনা বাঙ্কার উড়ে গেছে ভারতীয় মিসাইলের আঘাতে। ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে জঙ্গিদের লঞ্চপ্যাডগুলি।